চট্টগ্রাম রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:১৪ পূর্বাহ্ণ

মোর্শেদ নয়ন হ কর্ণফুলী

পদপ্রত্যাশীর সিভি নেয়ার পর কাটল বছর

কর্ণফুলী উপজেলা ছাত্রলীগ কমিটি হবে কবে ?

কর্ণফুলী উপজেলায় ছাত্রলীগ কমিটি নেই দীর্ঘদিন ধরে। নতুন কমিটি গঠন করার লক্ষে উপজেলা কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে আগ্রহী নেতাকর্মীর কাছ থেকে জীবন বৃত্তান্ত (সিভি) নেয়ার পর বছর পার হলেও এখনো কমিটি গঠন করতে পারেনি জেলা ছাত্রলীগ। দীর্ঘদিন কমিটি না হওয়ায় পদপ্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর মাঝে হতাশা বিরাজ করছে। কর্মীরাও হয়ে পড়ছেন দ্বিধা বিভক্ত। এতে উপজেলা ছাত্রলীগের কার্যক্রমও স্থবির হয়ে পড়েছে। জানা যায়, সর্বশেষ ২০১২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি কর্ণফুলী থানা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়। আবদুল মালেক জনির নেতৃত্বাধীন তৎকালীন জেলা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক কমিটি মো. জসিম উদ্দীনকে সভাপতি ও জীবন মঞ্জুর আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে দুই বছরের জন্য ওই কমিটির অনুমোদন দেয়। এইদিকে, ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর এস এম বোরহান উদ্দিনকে

সভাপতি এবং আবু তাহেরকে সাধারণ সম্পাদক করে এক বছরের জন্য দক্ষিণ জেলার ছাত্রলীগ নতুন কমিটি গঠিত হয়। দায়িত্ব নিয়ে তারা যৌথ স্বাক্ষরে ২০১৮ সালের ২৮ জুন কর্ণফুলী থানা ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত করেন। ওই সময় তারা গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি গঠন করা হবে। এ লক্ষে জেলা কমিটি ওই বছর ১০ জুলাই উপজেলা ছাত্রলীগ কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে আগ্রহী নেতাকর্মীর কাছ থেকে জীবন বৃত্তান্ত জমা নেয়। সভাপতি পদে ২৭ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৪৫ জন পদপ্রত্যাশী জীবন বৃত্তান্ত জমা দেন। ওই জীবন বৃত্তান্ত গুলো যাচাই বাছাই করতে ইতোমধ্যে বছর পার হয়ে গেছে। সম্পন্ন হয়ে গেছে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। তবুও জেলা কমিটি নতুন কমিটি গঠন করতে পারেনি। দীর্ঘদিন নতুন কমিটি গঠন না হওয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা দ্বিধা বিভক্ত হয়ে পড়েছেন। ছাত্রলীগের কার্যক্রমে বিরাজ করছে স্থবিরতা।
পদপ্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতারা জানান, এখানে দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের কমিটি না থাকায় বিচ্ছিন্নভাবে কেউ কেউ ব্যক্তিগত উদ্যোগে কিছু কর্মসূচি পালন করলেও কার্যত ছাত্রলীগের কোন কার্যক্রম নেই। তাই এখানে আওয়ামীলীগ নেতাদের সাথে বিয়ে দাওয়াত খাওয়া ও সেলফি তোলা ছাড়া আর কোন কাজ নেই।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, কর্ণফুলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ পদে আসতে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন ছাত্র জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। এদের মধ্যে সভাপতি পদে মো. মুছা, নুর মুহাম্মদ নাঈম, এস এম মহসিন, সালাউদ্দিন টিপু, এম. সাইফুদ্দিন, শাকিল আহমেদ, মো. আতিকুল ইসলাম জুয়েল, ইফতিখার হাসান বিন রনি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে সাঈদ হোসেন রিমন, সাজ্জাদ সাজিদ, মোহাম্মদ মোর্শেদ আলোচনায় আছেন। তবে কর্ণফুলী-আনোয়ারা আসনের সাংসদ ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের সুদৃষ্টি যারা পাবেন তারাই হবেন আগামী দিনের ছাত্রলীগের কা-ারী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, পদপ্রত্যাশীদের জমা দেয়া জীবন বৃত্তান্ত যাচাই বাছাই শেষ করা হয়েছে। যারা গঠনতন্ত্র মোতাবেক সব শর্ত পূরণ করতে পারবে তাদের দিয়ে চলতি মাসের মধ্যে কর্ণফুলী উপজেলা কমিটি গঠন করা হবে। আহ্বায়ক নাকি পূর্ণাঙ্গ কমিটি হবে তা সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সাথে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

The Post Viewed By: 128 People

সম্পর্কিত পোস্ট