চট্টগ্রাম বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২

সর্বশেষ:

১৮ জানুয়ারি, ২০২২ | ৬:৪৮ অপরাহ্ণ

কাপ্তাই সংবাদদাতা

১৮ মাসের বেতন বকেয়া: বিএসপিআইয়ে শিক্ষকদের মানববন্ধন

কারিগরি শিক্ষায় গুরুত্ব দিয়ে একের পর এক মহাপরিকল্পনা হাতে নিচ্ছে সরকার। তবে প্রধানমন্ত্রী যাদের নিয়ে স্বপ্ন দেখেন সেই শিক্ষকরাই অবহেলিত। গত ১৮ মাস বেতন বকেয়া বাংলাদেশ সুইডেন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষকদের। তাই দ্রুত এসব টাকা পরিশোধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় এমন দাবিতে মানববন্ধন করেন প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন প্রাপ্ত রাজস্বে প্রক্রিয়াধীন শিক্ষকগণ। এসময় ‘স্কিল এ্যান্ড ট্রেনিং এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট (স্টেপ)’ শীর্ষক সমাপ্ত প্রকল্প থেকে রাজস্ব খাতে প্রক্রিয়াধীন ৭৭৭ জন শিক্ষকের চাকুরি রাজস্ব খাতে দ্রুত স্থানান্তরেরও দাবি জানান শিক্ষকরা।

বিএসপিআই ইনস্ট্রাক্টর সঞ্জীবন চন্দ দের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন বাস্তবায়ন কমিটির প্রতিনিধি অমর জ্যতি চাকমা। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ছাত্র শিক্ষক ও পেশাজীবী সংগ্রাম পরিষদ (আইডিইবি) আহবায়ক ও জেনিক কাপ্তাইয়ের প্রকৌশলী আবদুল আলী।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে উন্নত রাষ্ট্রের দিকে। কারিগরি শিক্ষায় গুরুত্ব দিয়ে একের পর এক মহাপরিকল্পনাও হাতে নিচ্ছে সরকার। সেখানেই খোদ শিক্ষকরাই অবহেলিত। প্রধানমন্ত্রী যাদের নিয়ে স্বপ্ন দেখেন তারাই বেতন পাচ্ছেন না। তাই ৭৭৭ জন শিক্ষকের চাকুরি রাজস্বখাতে দ্রুত স্থানান্তর ও ১৮ মাসের বেতন বকেয়া বাস্তবায়নের দাবি জানাই প্রধানমন্ত্রীর নিকট।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ক্রাফ ইনস্ট্রাক্টর বিউটি বিশ্বাস, বাকাছাপ প্রতিনিধি মো. খোকন, ক্রাফ ইনস্ট্রাক্টর মো. দেলোয়ার হোসেন, ক্রাফ ইনস্ট্রাক্টর নুরুজ্জামান প্রমুখ।

এ ব্যাপারে বিএসপিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. কামাল হোসেন পূর্বকোণকে বলেন, আন্দোলনকারীদের দাবি যুক্তিযুক্ত। তাদের দাবি অনেক পুরনো এবং বয়সও শেষ পর্যাযয়ে, তাই উর্ধ্বতন মহল এদের দাবি বাস্তবায়ন করবেন আশা করি।

এদিকে দাবি বাস্তবায়ন করা না হলে সামনে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন আন্দোলনকারীরা।

 

পূর্বকোণ/কবির/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট