চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

মারা যাওয়া বৃদ্ধই কি মোসলেউদ্দিন?

২৪ এপ্রিল, ২০২০ | ৩:৪৬ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

মারা যাওয়া বৃদ্ধই কি মোসলেউদ্দিন?

চলতি সপ্তাহে ভারতীয় একাধিক গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেম উদ্দিনকে কলকাতায় আটক করা হয়েছে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, আটক হওয়া ব্যক্তিই রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেম উদ্দিন কি না, তা নিশ্চিত হতে তার ডিএনএ পরীক্ষা করা হচ্ছে।

‘ধৃত বৃদ্ধই কি মুজিব ঘাতক, জিন পরীক্ষা’; এই শিরোনামে আনন্দবাজার পত্রিকা ‘বাংলাদেশি গোয়েন্দা সূত্রে’র বরাত দিয়ে জানিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ থেকে নিয়ে যাওয়া এক বৃদ্ধই শেখ মুজিবুর রহমানের ঘাতক রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেউদ্দিন কি না, তা নিশ্চিত করতে তার ডিএনএ পরীক্ষা করা হচ্ছে। সত্তরোর্ধ্ব এই বৃদ্ধকে রবিবার মধ্যরাতে উত্তর ২৪ পরগনার বেরি গোপালপুর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশি গোয়েন্দাদের হাতে তুলে দেয়া হয় বলে দাবি ভারতীয় গোয়েন্দাদের একটি সূত্রের। আনন্দবাজারের খবরে আরো বলা হয়; এই সূত্রের খবর অনুযায়ী, প্রায় ৪৮ ঘণ্টা যৌথ জেরায় ধৃতকে মুজিব-ঘাতক বলেই মনে হয়েছে ভারতীয় গোয়েন্দাদের। কিন্তু তারপরও পরিচয় নিশ্চিত হতে বাংলাদেশে বসবাসকারী মোসলেউদ্দিনের নিকটাত্মীয়দের জিনের সঙ্গে বৃদ্ধের জিন মিলিয়ে দেখা হচ্ছে। গোয়েন্দাদের দাবি, পরিচয় নিশ্চিত না হলে ওই বৃদ্ধকে যেন পশ্চিমবঙ্গে ফিরিয়ে দেয়া যায়, সে কারণেই হস্তান্তরের গোটা বিষয়টি বেসরকারি বোঝাপড়ার স্তরে করা হয়েছে। আনন্দবাজার আরো জানিয়েছে, লকডাউনের মধ্যে সম্ভাব্য মোসলেউদ্দিনের খবর পেয়ে বাংলাদেশি গোয়েন্দারা দিল্লিতে ভারতীয় গোয়েন্দাদের শীর্ষ কর্তাদের জানান বলে ঢাকা সূত্রে খবর পাওয়া যায়। সেই তথ্যের ভিত্তিতে গত শুক্রবার উত্তর চব্বিশ পরগনার একটি আধাশহর থেকে এই বৃদ্ধকে ধরে একটি গোপন জায়গায় জেরা শুরু করেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। ডেকে নেয়া হয় বাংলাদেশি গোয়েন্দা কর্তাদেরও। তার পরেই পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদেশি গোয়েন্দাদের হাতে বৃদ্ধকে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে ভারতীয় গোয়েন্দাদের একটি সূত্র জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিল ভারত থেকে আটক হওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আরেক খুনি আব্দুল মাজেদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। মোসলেউদ্দিন আটক হলে বঙ্গবন্ধুর আরো চার খুনি পলাতক থাকলেন। তারা হলেন; খন্দকার আব্দুর রশীদ, শরিফুল হক ডালিম, নূর চৌধুরী ও এএম রাশেদ চৌধুরী। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/এম

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 595 People

সম্পর্কিত পোস্ট