চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

করোনার উপসর্গ নিয়ে সাংবাদিক সুমনের মৃত্যু
করোনার উপসর্গ নিয়ে সাংবাদিক সুমনের মৃত্যু

২৩ মে, ২০২০ | ১২:২১ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

করোনার উপসর্গ নিয়ে সাংবাদিক সুমনের মৃত্যু

করোনার ‍উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও সিনিয়র সাংবাদিক সুমন মাহমুদ (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ায় আসগর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (২২ মে) বিকেল ৪টা ১৫ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তিনি স্ত্রী বিশিষ্ট ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. শাহিদা পারভীন, মেয়ে জার্মানিতে কর্মরত ইঞ্জিনিয়ার শর্মিষ্ঠা ও ছেলে ডাক্তার সৌরভসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। শুক্রবার রাতে তাকে বনানীর একটি কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে দাফন করা হয় বলে তার পরিবার সূত্রে জানা যায়।

সুমন মাহমুদ দীর্ঘদিন থেকে অবসর জীবন যাপন করছিলেন। পেশাগত জীবনে তিনি দৈনিক ভোরের কাগজসহ বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে যুক্ত ছিলেন।

সাংবাদিক সুমনের ভাই কর্নেল (অব.) মঞ্জুর আহমেদ হেলাল জানান, জামালপুর জেলার মেলানদহ থানার পাঁচতইলা গ্রামের মরহুম নিজামউদ্দিন আহমেদের ছেলে সুমন। বর্তমানে রাজধানীর আসাদ এভিনিউয়ের একটি বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন তিনি। গত ১২ মে থেকে প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। যেহেতু শ্বাসকষ্ট করোনার উপসর্গ তাই সুমন মাহমুদকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে ৩ ঘণ্টা অপেক্ষা শেষে একটি অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে থাকার ব্যবস্থা করে দেয় কর্তৃপক্ষ। সেখানে থাকা সম্ভব নয় ভেবে সুমন মাহমুদকে বাসায় নিয়ে আসলে পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকে।

তিনি আরো জানান, পরে ওই দিন রাতেই আজগর আলী হাসপাতালে সুমনকে ভর্তি করানো হয়। পরে ১৩ তারিখ শ্বাসকষ্ট আরো বেড়ে যায় তার। ১৪ তারিখ থেকে নেবুলাইজার দেওয়াসহ সব ধরনের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। ওই দিন থেকেই তিনি অচেতন অবস্থায় ছিলেন। এর মাঝখানে দুইবার করোনা টেস্ট করানো হয়। যার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

শুক্রবার বিকেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
তার মৃত্যুতে শোক জানান জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি।
উল্লেখ্য, জাসদের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই জাসদের সাথে যুক্ত ছিলেন এবং ১৯৭৯-৮১ সালে জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি সক্রিয় দলীয় রাজনীতি ছেড়ে সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করেন।

পূর্বকোণ/ এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 215 People

সম্পর্কিত পোস্ট