চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

‘এজেন্ট বের করার ১০০ প্রমাণ দিতে প্রস্তুত বিএনপি’
‘এজেন্ট বের করার ১০০ প্রমাণ দিতে প্রস্তুত বিএনপি’

১৫ মার্চ, ২০২০ | ৫:০০ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

‘এজেন্ট বের করার ১০০ প্রমাণ দিতে প্রস্তুত বিএনপি’

চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মেয়র প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ‘আমি ওপেন চ্যালেঞ্জ করছি একটা প্রমাণ দেন যে কোথায় কোন সেন্টার থেকে কারা পোলিং এজেন্টদের বের করে দিয়েছে নামসহ এমন একটি প্রমাণ দেখান, তাহলে আমি সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।’

আর সিইসির এ বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করে বিএনপি নেতারা বলেন, ‘এজেন্ট বের করে দেয়ার প্রমাণ ইসিকে একটি নয় ১০০টি দিতে পারবেন তারা।’

সিইসিকে উদ্দেশ করে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, ‘একটি বিষয়ে আপনাকে গুরুত্ব দিতে হবে, লাইনে বহিরাগতরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকে। অপরদিকে ভোটাররা ভোট দিতে না পেরে বিরক্ত হয়ে চলে যায়।কারণ বুথের মধ্যে আগে থেকে বহিরাগতরা বসে থাকে। বলে- আপনার ভোট হয়ে গেছে চলে যান। তাই বুথের নিরাপত্তা দিতে হবে।’

জবাবে সিইসি বলেন, ‘আমি ওপেন চ্যালেঞ্জ করছি একটা প্রমাণ দেন যে কোথায় কোন সেন্টার থেকে কারা পোলিং এজেন্টদের বের করে দিয়েছে নামসহ এমন একটি প্রমাণ দেখান, তাহলে আমি সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।’

এসময় চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপিপ্রার্থী আবু সুফিয়ান দাঁড়িয়ে বলেন, ‘একটি নয় একশটি প্রমাণ দেব। চট্টগ্রাম-৮ উপনির্বাচনে ১৭১টি সেন্টার থেকে আমার নির্বাচনী এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়। সেই ছবি, ভিডিও প্রমাণসহ নির্বাচন কমিশনের ঢাকা অফিসে গিয়ে জমা দিয়েছি। সেখানে এমন অনেক প্রমাণ দেয়া হয়েছে যে মৃত ব্যক্তি ভোট দিয়েছে, প্রবাসীরা ভোট দিয়েছে। কিন্তু নির্বাচন কমিশন কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।’

একাদশ সংসদ নির্বাচনে কোতোয়ালী (চট্টগ্রাম-৯) আসনে ভোটের ফলাফল নিয়ে প্রশ্ন তুলে শাহাদাত বলেন, ‘গত নির্বাচনে আমি প্রার্থী ছিলাম, জেলে থেকে নির্বাচন করেছি। দিন শেষে দেখা গেল আমার প্রতিদ্বন্দ্বীপ্রার্থী ৪ লাখ ভোটের মধ্যে ২ লাখ ৬০ হাজার ভোট পেয়েছেন। অথচ পুরো দুনিয়া দেখেছে, দিনভর কোনো ভোটারকেই ভোট সেন্টারগুলোতে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি, এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে। ইভিএমএ ভোট হলো, সেই ভোটের ফলাফল দেয়া হলো রাত ১ টায়!’

জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ‘আমাদের ম্যাজিস্ট্রেট ও রিটার্নিং অফিসারদের নির্দেশ দেয়া আছে, কোন অভিযোগ পেলে তাদের জানাবেন তারা ব্যবস্থা নেবেন। তবে আমরা তো কোনো এজেন্টকে বাড়ি থেকে গিয়ে গার্ড দিয়ে গাড়িতে করে নিয়ে আসব না। এজেন্টকে কেন্দ্রে আসতে হবে।’

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 98 People

সম্পর্কিত পোস্ট