চট্টগ্রাম বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সার্কিট হাউজে মতবিনিময়কালে মুখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ এসডিজি স্থানীয়করণ করতে হবে

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ১:৫৯ পূর্বাহ্ণ

সার্কিট হাউজে মতবিনিময়কালে মুখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ এসডিজি স্থানীয়করণ করতে হবে

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ বলেছেন, ২০১৫ সালে বাংলাদেশ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে এমডিজি সম্পন্ন করেছে। জাতিসংঘ-বাংলাদেশ ২০১৫ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর এসডিজি স্বাক্ষর করেন। এসডিজিতে ১৭টি গোল, ১৬৯ টি লক্ষমাত্রা ও ২৩২ টি সূচক রয়েছে। এগুলো বাস্তবায়নের জন্য সরকারের প্রত্যেকটি মন্ত্রণালয় কাজ করছে। ২০৩০ সালে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে হলে সকলের একসাথে কাজ করতে হবে। এসডিজি শতভাগ বাস্তবায়নের জন্য এখন সকলের অংশগ্রহণ জরুরি। জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের সকল নারী, পুরুষ ও শিশু সকলের অংশগ্রহণে এসডিজির টেকসই বাস্তবায়ন করতে হবে।

মুখ্য সমন্বয়ক (সিনিয়র সচিব) গতকাল চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে ‘কেউ পিছিয়ে পরে থাকবে না’ বাস্তবায়ন বিষয়ে স্থানীয় অংশীজনের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
সভায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদের সভাপতিত্বে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো.নুরুল আলম নিজামী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ( রাজস্ব) মো. হাবিবুর রহমান, চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহেদুজ্জামানসহ চট্টগ্রাম বিভাগের সকল জেলা প্রশাসকগণ, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়র, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, বিভাগীয় পর্যায়ের সরকারের সকল দপ্তর প্রধান, এনজিও প্রতিনিধি, নারী উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, চেম্বার প্রতিনিধি নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক মো. আশরাফ উদ্দিন। পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন ।

সিনিয়র সচিব বলেন, ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বাংলাদেশ স্বাধীন করেছেন। বাঙালি জাতি হিসেবে আমরা জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা ও সম্মান জানাই। যে জাতি গুণীজনের সম্মান ও শ্রদ্ধা করতে জানে না, সে জাতি কখনো উন্নতি করতে পারে না। তিনি বলেন, জাতির পিতা গ্রামের তৃনমূল পর্যায়ের মানুষের জন্য বেশি গুরুত্ব দিতেন। সে লক্ষ্যে তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শহরের সুবিধা গ্রামে পৌঁছে দেওয়ার জন্য কাজ করছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের পথে ধাবমান রয়েছে। বাংলাদেশ ২০৫০ সালে বিশে^র ১২তম অর্থনীতির দেশ হবে। তথ্য বিবরণী

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 110 People

সম্পর্কিত পোস্ট