চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

কক্সবাজার জেলা পরিষদের বাজেট ঘোষণা

কক্সবাজার সংবাদদাতা

৫ জুলাই, ২০২৪ | ৭:৫৫ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার জেলা পরিষদের ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বাজেটের আকার ধরা হয়েছে ১৪৬ কোটি ৮৩ লাখ ৩২ হাজার ৭৩০.৮২ টাকা, যা জনবান্ধব নীতির প্রতিফলন বলে মনে করা হচ্ছে।

 

গত বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় উক্ত বাজেট উপস্থাপন করা হয়।

 

চলতি অর্থবছরের তুলনায় বাজেটের আকার বেড়েছে ৪ কোটি ৮০ লাখ টাকা। বাজেটে উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, মৎস্য, পর্যটন, সমাজসেবা, পরিবেশ রক্ষা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, খেলাধুলা, সংস্কৃতি, তথ্যপ্রযুক্তি ইত্যাদি খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

 

বাজেটে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতকে। শিক্ষা খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৩৬ কোটি ৫৪ লাখ ৮৬ হাজার ৭৮৮ টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর উন্নয়ন, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ইত্যাদি কাজ করা হবে। স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২৬ কোটি ৫৯ লাখ ৮৭ হাজার ৫৪৩ টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে জেলার হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোর উন্নয়ন, চিকিৎসা সরঞ্জাম ও ওষুধ ক্রয়, চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ, স্বাস্থ্য শিবির আয়োজন ইত্যাদি কাজ করা হবে।

 

উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৪২ কোটি ৮৯ লাখ ৯০ হাজার ৩৭১ টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে জেলার বিভিন্ন সড়ক, ঘাট, ব্রিজ, পোলডার, খাল-বিল ইত্যাদি নির্মাণ ও সংস্কার করা হবে। এছাড়াও, বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ইত্যাদি সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির জন্যও কাজ করা হবে।

 

কৃষি খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১০ কোটি ৩৩ লাখ ৭৬ হাজার ৬৩৫ টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে কৃষকদের প্রশিক্ষণ, উন্নত বীজ ও সার বিতরণ, কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ, কৃষি ঋণ প্রদান ইত্যাদি কাজ করা হবে।

 

মৎস্য খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৮ কোটি ৮৯ লাখ ৭৫ হাজার ৫৫৪ টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে মৎস্যজীবীদের প্রশিক্ষণ, উন্নত জাল ও নৌকা সরবরাহ, মৎস্য খামারের উন্নয়ন, মৎস্যজীবীদের ঋণ প্রদান ইত্যাদি কাজ করা হবে।

 

পর্যটন খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৫ কোটি ৬২ লাখ ৩১ হাজার টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে কক্সবাজারের পর্যটন স্পটগুলোর উন্নয়ন, পর্যটকদের জন্যে সেবা সুবিধা বৃদ্ধি, পর্যটন পুলিশের কার্যক্রম জোরদার করা ইত্যাদি কাজ করা হবে। এছাড়াও, সমাজসেবা খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৬ কোটি ৮৭ লাখ ৯৫ হাজার ৯৬৭ টাকা, পরিবেশ রক্ষা খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৪ কোটি ৩২ লাখ ৫৬ হাজার ৮০৬ টাকা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৩ কোটি ৭৮ লাখ ৯৬ হাজার ১০৭ টাকা, খেলাধুলা খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২ কোটি ৯৮ লাখ ৭২ হাজার ৫২০ টাকা এবং সংস্কৃতি খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১ কোটি ৯০ লাখ ৬৩ হাজার ৮০ টাকা।

 

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নেও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এই খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এই বরাদ্দের মাধ্যমে সরকারি দপ্তরগুলোর কার্যক্রমে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি, ওয়েবসাইট ও অনলাইন সেবা উন্নয়ন ইত্যাদি কাজ করা হবে।

 

জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিনুল হক মার্শাল বাজেটে বরাদ্দ বৃদ্ধি এবং জনকল্যাণমূলক কর্মসূচির প্রতি গুরুত্ব দেওয়ার কথা জানান। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, এই বাজেটের মাধ্যমে কক্সবাজার জেলার সার্বিক উন্নয়ন সাধন করা যাবে।

 

এই বাজেট জনসাধারণের কাছে কতটা কার্যকর হবে এবং বরাদ্দকৃত অর্থ কি সঠিকভাবে ব্যবহার করা হবে সেদিকে এখন সবার নজর।

 

 

পূর্বকোণ/এরফান/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট