চট্টগ্রাম রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

বান্দরবানে টানা বৃষ্টিতে পাহাড় ধসের শঙ্কা, সতর্ক করতে মাইকিং

নিজস্ব প্রতিবেদক

১ জুলাই, ২০২৪ | ৫:২৫ অপরাহ্ণ

বান্দরবানে টানা বৃষ্টিতে পাহাড়ধসের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থায় পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

 

আবহাওয়া অধিদপ্তরের বান্দরবান জেলা কার্যালয়ের তথ্য মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় (সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত) বান্দরবানে ১০৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে আর বর্ষণজনিত কারণে পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভূমিধসের শঙ্কা রয়েছে।

 

স্থানীয়রা জানান, জেলার প্রায় সব উপজেলাসহ জেলা শহরের টাংকি পাহাড়, বালাঘাটা, কালাঘাটা, ইসলামপুর, হাফেজঘোনা, বনরুপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকার পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় কয়েক লাখ মানুষের বসবাস। টানা বৃষ্টি হলেই এসব এলাকায় পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটে।

 

এদিকে প্রবল বৃষ্টি আর বন্যার শঙ্কায় বান্দরবান পার্বত্য জেলার সাতটি উপজেলায় ২১৪টি অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রেখেছে প্রশাসন। সাধারণ জনগণকে এ মহূর্তে সতর্ক থাকার পাশাপাশি নিরাপদে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

 

বান্দরবান পৌর মেয়র শামসুল ইসলাম জানান, পৌরসভার ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে প্রচারণা চালাতে মাইকিং করা হচ্ছে। দুর্যোগ মোকাবিলায় ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে।

 

জেলা আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সনাতন কুমার মন্ডল বলেন, আগামী ৭২ ঘণ্টা মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১০৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

 

বান্দরবান পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী অরুপ চক্রবর্তী জানান, এখন পর্যন্ত সাঙ্গু নদীর পানি বিপৎসীমার নিচে রয়েছে। টানা আরও দু-তিনদিন বৃষ্টিপাত হলে বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট