চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

রাউজানে শালিসি বৈঠকে হামলা, নারী-শিশুসহ আহত ৮

রাউজান সংবাদদাতা

২২ জুন, ২০২৪ | ৯:৩৪ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে রাউজানের নোয়াপাড়ায় শালিসি বৈঠকে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী শিশুসহ আটজন আহত হয়েছেন। আজ শনিবার (২২ জুন) দুপুরে এই ঘটনা ঘটে।

 

জানা যায়, নোয়াপাড়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কচুখাইন মধ্যম পাড়া এলাকায় কিরিচ, গাছের গুড়িসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত করেন প্রতিপক্ষ। এছাড়া মরিচের গুঁড়া ছিটিয়েও লোকজনকে সরিয়ে দেয়া হয়।

 

হামলাকারীরা যাওয়ার পর স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

 

শনিবার সন্ধ্যায় গিয়ে স্থানীয়দের সাথে কথা বললে তারা জানায়, ঘটনার পর থেকে আসামিরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে। আসামিদের বাড়িতে গেলে কাউকে পাওয়া যায়নি।

 

ঘটনায় আহতরা হলেন- ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোরশেদ ইসলাম (৫০), টুলস এন্ড মেশিনারি ব্যবসায়ী মুহাম্মদ আজম হোসেন (৪৮), তার ভাই আনোয়ার হোসেন (৪৪), তার মেয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রী আইনুন নাহার (১৬), ছেলে নবম শ্রেণির ছাত্র শাহরিয়ার হোসেন (১৫), আয়মান হোসেন (১৪), স্থানীয় মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি খায়েজ আহমদ (৫৫) ও সার্ভেয়ার জাহাঙ্গীর আলম (৪৫)।

 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের মুহাম্মদ আজম হোসেনের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা মুহাম্মদ নুরুদ্দিনের এক গণ্ডা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলে। এ নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে একটি শালিস বৈঠক ডাকা হয় আজ শনিবার সকালে। এর মধ্যে বৈঠক চলাকালে হঠাৎ মুহাম্মদ নুরুদ্দিন (৩৪) ও আকতার হোসেনের (৪০) নেতৃত্বে ৭-৮ জন হামলা চালায় আজম হোসেনসহ অন্য শালিসকারক ও নারী শিশুদের উপর।

 

নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য খোরশেদ ইসলাম বলেন, মনে হয়েছে এটি পরিকল্পিত হামলা। আমরা বিরোধ মেঠাতে গিয়ে নিজেরায় হামলার শিকার হলাম।

 

রাউজান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) টুটন মজুমদার বলেন, ঘটনার পর আসামিদের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয়ে গ্রেপ্তার করা হবে।

 

 

পূর্বকোণ/জাহেদ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট