চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

বান্দরবানে বেড়াতে এসে প্রাণ হারাল মেডিকেল শিক্ষার্থী

লামা-আলীকদম সংবাদদাতা

২২ জুন, ২০২৪ | ২:৩৯ অপরাহ্ণ

বান্দরবানের আলীকদমের পর্যটন স্পট মারাইংতং পাহাড়ে বেড়াতে এসে ইফতেখারুল আহমেদ আবিদ (১৯) নামে এক পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২২ জুন) দিবাগত রাতে আলীকদমের পর্যটন স্পট মারাইংতং পাহাড় থেকে লামা সরকারি হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহত ইফতেখারুল আহমেদ আবিদ টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার গান্ধীনা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি বগুড়া শহীদ জিয়াউর মেডিকেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র বলে জানায় তার সফরসঙ্গী ও বন্ধু ওয়ালিদ খন্দকার।

নিহতের বন্ধু ওয়ালিদ খন্দকার ও নাফিজ হাসান বলেন, ‘শুক্রবার সকাল ১০টায় তারা ঢাকা থেকে আলীকদম উপজেলার চৈক্ষ্যং আবাসিক এলাকায় পৌঁছান। সেখানে দুপুরে একটি ঝর্ণা ঘুরে এসে ইয়াছিন হোটেলে খাবার খেয়ে বিকেল ৫টায় মারাইংতং পাহাড়ের যাত্রা শুরু করে। অনেক বন্ধু মোটরসাইকেলে উঠলেও ইফতেখারুল আহমেদ আবিদ হেঁটে পাহাড়ে উঠেন। রাতে তার আরও দুই বন্ধু ওয়ালিদ খন্দকার ও নাফিজ হাসানসহ তিনজন মিলে একটি তাবুতে থাকেন। রাত সাড়ে ১১টায় আবিদ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। তার খিঁচুনি আসে। তখন সব বন্ধুরা মিলে মোটরসাইকেলে করে দিবাগত রাত দেড়টায় লামা সরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে লামা হাসপাতালের দায়িত্বরত মেডিকেল অফিসার ডা. মো. জুনাইদ বলেন, ইফতেখারুল আহমেদ আবিদকে রাত দেড়টায় আনা হয়। হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। রাত ৪টায় লামা থানার পুলিশ আবিদের লাশ থানায় নিয়ে যায়। কি কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে বলা যাবে। তবে তার শরীরের কোথাও আঘাতের চিহ্ন ছিল না।

লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামীম শেখ বলেন, তার শ্বাসকষ্ট ছিল বলে আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি। এখন তার লাশ থানায় রাখা হয়েছে। পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তার বন্ধুরা সবাই আছে।

তিনি আরও বলেন, রোদের মধ্যে সারাদিন দুর্গম পাহাড়-ঝর্ণায় বেড়ানোর কারণে শরীর দুর্বল হয়ে অসুস্থ হয়ে একপর্যায়ে আবিদের মৃত্যু হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। পরিবারের লোকজন পৌঁছালে তার মরদেহ আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট