চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

চরলক্ষ্যায় বন্দরের সাড়ে আট একর জমি ভূমিদস্যুর দখলে

নিজস্ব প্রতিবেদক 

৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ১২:১৬ অপরাহ্ণ

কর্ণফুলী উপজেলার চরলক্ষ্যায় চট্টগ্রাম বন্দরের মালিকানাধীন সাড়ে ৮ একর জমি দীর্ঘদিন ধরে ভূমিদস্যুর দখলে রয়েছে। ওই জমিতে প্রায় ২০টি টিন শেডের কাঁচা ঘর নির্মাণ করে অবৈধ দখলে রয়েছে কিছু ব্যক্তি।

তবে দখলে থাকা মানুষজনের মধ্যে অনেকেই বিভিন্ন অসাধু ব্যক্তির কাছ থেকে অর্থের বিনিময়ে ওই জমি দখলে নিয়ে বসবাস করছে। কর্ণফুলী নদীর ওপারে থাকা ওই জমি বন্দরের যথাযথ তদারকির অভাবে কিছু সুবিধাভোগী ভূমিদস্যু দখলে নিয়ে ভোগ করে যাচ্ছে দীর্ঘদিন ধরেই। এমনকি কিছু জমিতে পুকুর তৈরি করে মাছ চাষ করতেও দেখা গেছে। এবার সেই জমি পুনরুদ্ধারে নেমেছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রাম বন্দরের ম্যাজিস্ট্রেট সাদিয়া আফরিন কচি’র নেতৃত্বে ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ওই জমি পরিদর্শনে যায়। সেখানে অবৈধ দখলে থাকা মানুষদের সাথে কথা বলে বন্দরের জায়গা থেকে সরে যাওয়ার জন্য জানিয়ে দেওয়া হয়। তাদের ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দেয় বন্দর কর্তৃপক্ষ। এই সময়ের মধ্যে তাদের অন্যত্র সরে যাওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয় এবং কোন দাবি-দাওয়া থাকলে ওই সময়ের মধ্যে বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে উপস্থাপন করতে বলা হয়। যদিও অবৈধ দখলে থাকা কেউ বৈধ কোন নথিপত্র উপস্থাপন করতে পারেনি বলে জানিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের ভূসম্পত্তি বিভাগের কর্মকর্তারা। তারা আরো জানান, বন্দর চেয়ারম্যানের নির্দেশে অবৈধ দখলে থাকা ওই জায়গা দ্রুত পুনরুদ্ধার করে বন্দরের কাজে ব্যবহার করা হবে।

উল্লেখ্য, চরলক্ষ্যার ওই সাড়ে ৮ একর জমির পাশেই রয়েছে বন্দরের মালিকানাধীন আরো ১০ একর জমি। যার কিছু অংশ অবৈধ দখলে রয়েছে। পর্যায়ক্রমে সেই অবৈধ দখলে থাকা জমিও পুনরুদ্ধার করা হবে বলে জানিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট