চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪

পেকুয়ায় দুই শিক্ষার্থীসহ ৩ জনকে কুপিয়ে জখম

পেকুয়া - চকরিয়া সংবাদদাতা

১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ৯:০৪ অপরাহ্ণ

 কক্সবাজারের পেকুয়ায় জমির বিরোধের জেরে দুই স্কুল শিক্ষার্থীসহ তিনজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার টইটং ইউনিয়নের আলেকদিয়া পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

 

আহতরা হলেন,ওই এলাকার মৃত মো.ইলিয়াসের ছেলে জমির উদ্দিন (৩৩), নাছির উদ্দিনের ছেলে মো. রুবেল (১৫) ও মেয়ে সুমি আক্তার (১৪)। রুবেল ও সুমি টইটং উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আহত জমির উদ্দিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। আহত জমির উদ্দিনের মা তাহেরা বেগম বলেন, বন্যার সময় আবর্জনায় ভরপুর হয়ে যায় বসতভিটা লাগোয়া একটি ছোট পুকুর। দুপুরের দিকে পুকুরের আবর্জনা পরিস্কার করছিল জমির উদ্দিন, নাতি রুবেল ও সুমি। এসময় প্রতিবেশী আকতার আহমদ, তাঁর ছেলে ফোরকান, জুবাইর, বাবু, মোস্তাকের ছেলে ইউনুসসহ আরো ২-৩ জন লোক এসে কাজে বাধা দেয়। এসময় তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে তারা ধারলো অস্ত্র দিয়ে তিনজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে।

 

আহত রুবেল ও সুমি বলেন, চাচা জমির উদ্দিন পুকুরের ময়লা আবর্জনা পরিস্কার করছিল। তাকে আমরা কাজে সাহায্য করছিলাম। হঠাৎ ৭-৮ জন লোক এসে চাচাকে আক্রমণ করে। কাদার মধ্যে চেপে ধরে। আমরা তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে আমাদেরও পিটিয়ে আহত করে। স্থানীয় ইউপি সদস্য দিলোয়ারা বেগম বলেন, রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। জমিরের মাথায় কাটা জখম রয়েছে। বাম হাতের হাড ভেঙে গেছে। অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব না হওয়ায় বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ওমর হায়দার বলেন, এখনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

পূর্বকোণ/জাহেদ/আরআর/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট