চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

৭ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১২:২৪ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার সংবাদদাতা

সংঘাত নয়, আমরা সমঝোতায় বিশ্বাসী : কক্সবাজারে প্রধানমন্ত্রী

সংঘাত নয়, আমরা সমঝোতায় বিশ্বাসী। সেভাবে আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। যুদ্ধে কোন সমাধান নাই। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তা আমরা দেখেছি।

 

আজ বুধবার (৭ ডিসেম্বর) ইনানির পাটুয়ারটেকের বঙ্গোপসাগরে আন্তর্জাতিক নৌশক্তি প্রদর্শন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধবিধস্ত দেশকে শক্তিশালী দেশে রূপান্তর করতে উদ্যোগ নেন বঙ্গবন্ধু। সব দেশের সাথে সুসসম্পর্ক রেখে আমরা দেশ পরিচালনা করছি। এগিয়ে যাচ্ছি।

 

বুধবার সকাল ১১টা ২২ মিনিটে নৌবাহিনীসহ সবাইকে স্বাগত জানিয়ে ভাষণ শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নৌমহড়ায় যেসব দেশ যোগদান করেছে তাদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি।

 

১৫ আগস্ট কালোরাতে নিহত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ পরিবারের সকল সদস্য ও বীর শহীদদের প্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। ঘাতকদের বুলেটের আঘাতে নির্মমভাবে শহীদদের কথা স্মরণকালে কিছুটা আবেগাপ্লুত হন তিনি।

 

বিশ্বের ২৮টি দেশের অংশগ্রহণে কক্সবাজারে প্রথমবারের মতো শুরু হলো চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ফ্লিট রিভিউ (আইএফআর) ২০২২। নৌবাহিনীর প্রথা অনুযায়ী ‘শীপ্স বেল’ বাজিয়ে বুধবার ইনানীতে ঐতিহাসিক এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের অংশ হিসেবে নৌবাহিনী এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশ থেকে আগত নৌসদস্যদের নিয়ে একটি বর্ণাঢ্য কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। পরে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বিশেষায়িত ফোর্স সোয়াড্স কর্তৃক সমুদ্রে একটি বিশেষ মহড়া প্রদর্শিত হয়।

 

এ আয়োজনে ২৮টি দেশের নৌপ্রধান এবং বাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া বাংলাদেশ নৌবাহিনীসহ বিশ্বের ৭টি দেশের যুদ্ধজাহাজ, মেরিটাইম পেট্রল এয়ারক্রাফট এবং হেলিকপ্টার এই মহড়ায় অংশ নেয়।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট