চট্টগ্রাম সোমবার, ২২ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

কথা রাখলেন প্রেমিক, চাঁদে জমি কিনে প্রেমিকাকে উপহার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ৬:৪৭ অপরাহ্ণ

প্রেম করার সময় প্রেমিক-প্রেমিকা পরস্পর একসাথে কথা প্রতিজ্ঞাই করেন। সব প্রতিজ্ঞা কি সবাই রাখেন? কেউ হয়তো রাখেন। তবে অধিকাংশই রাখেন না। প্রেমিকাকে কথা দিয়ে কথা ঠিকই রেখেছেন পশ্চিমবঙ্গের ঝাড়গ্রামের বাঙালি প্রেমিক সঞ্জয়। বিয়ে করার আগে স্ত্রীর কাছে তিনি প্রতিজ্ঞা করেছিলেন যে- একদিন আকাশের চাঁদ এনে দেবেন। বিয়ের পর ১০ হাজার রুপি দিয়ে চাঁদে জমি কিনে স্ত্রীকে জন্মদিনের উপহার দিয়েছেন।

 

ইন্ডিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি ভারতীয় চন্দ্রযান চাঁদে সফল অবতরণ করার পর চাঁদের জমি কেনার বিষয়ে আগ্রহী হয়ে ওঠেন সঞ্জয়। তিনি বিশ্বাস করেন, চাঁদের জমি উপহার দেওয়ার মাধ্যমে স্ত্রীর কাছে করা তাঁর প্রতিজ্ঞা বাস্তব রূপ পেয়েছে।

 

সঞ্জয় বলেন, আমি আর আমার স্ত্রী বহু বছর ধরেই বিয়ের জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলাম। অবশেষে গত এপ্রিলে আমরা বিয়ে করেছি। প্রতিজ্ঞা করেছিলাম, তাকে চাঁদ এনে দেব। আমি সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে পারিনি। কিন্তু এখন আমাদের বিয়ের পর তার প্রথম জন্মদিনে চিন্তা করলাম, চাঁদের একটি প্লট তাকে উপহার দিলে মন্দ হয় না।

 

সঞ্জয় জানান, এক বন্ধুর সহযোগিতায় ‘লুনা সোসাইটি ইন্টারন্যাশনাল’-এর মাধ্যমে চাঁদের ওই জমিটুকু কিনেছেন। পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে তার প্রায় এক বছর লেগে গেছে।

 

চাঁদের জমি কেনার স্বীকৃতি হিসেবে সঞ্জয়কে একটি দলিলও প্রদান করা হয়েছে। তিনি বলেন, আমি তার (স্ত্রী) জন্য চাঁদে এক একর জমি কিনেছি।’

 

চাঁদে জমি না কিনে ওই টাকা দিয়ে আপনি অন্য কিছুও তো কিনে দিতে পারতেন- এমন প্রশ্নে সঞ্জয় বলেন, ‘হ্যাঁ, তা পারতাম। কিন্তু চাঁদ আমাদের হৃদয়ের একটি বিশেষ জায়গা দখল করে আছে। তাই আমরা বিয়ে করার পর এর চেয়ে ভালো কোনো উপহার আর খুঁজে পাইনি।

 

জমি কিনলেও চাঁদে তো আর সশরীরে যাওয়া যাচ্ছে না। তারপরও সঞ্জয় জানান, নিজেদের বাগানে বসে তাঁর স্ত্রী যখন চাঁদের দিকে চেয়ে থাকেন তখন তিনি অন্য রকম এক অনুভূতি লাভ করেন। তাঁদের প্রেমের গল্পে এ বিষয়টি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ।

পূর্বকোণ/জেইউ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট