চট্টগ্রাম বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

পাকিস্তানে ৯০০ ফুট ওপরে ক্যাবল কারে আটকা শিশুসহ ৮ জনকে উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

২৩ আগস্ট, ২০২৩ | ২:৫৮ অপরাহ্ণ

পাকিস্তানের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ খাইবার পাখতুনখোয়ার পার্বত্য অঞ্চল বাট্টগ্রামে ক্যাবল কারে আটকে পড়া আটজনের সবাইকে উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) সকালে ক্যাবল কার আটকে যাওয়ার এ ঘটনা ঘটে। এরপর সকাল থেকেই শুরু হয় অভিযান। প্রায় ১৪ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযান শেষে তাদের উদ্ধার করা হয়। এতে হেলিকপ্টারসহ অংশ নেয় দেশটির সেনাবাহিনীর কমান্ডোরা। খবর বিবিসি।

গণমাধ্যমটি বলছে, খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের বাট্টগ্রাম জেলায় একটি নদী গিরিখাত পার হওয়ার সময় একটি তারের বিচ্ছিন্ন হলে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সময় সকাল ৭ টার দিকে ছয় শিশু ও দুইজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ আটকে পড়ে। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর হেলিকপ্টারের সহযোগিতায় উদ্ধারকাজ শুরু করা হয়েছিল ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ক্যাবলকারে করে তারা স্কুলে যাচ্ছিলো এবং মাঝপথে ক্যাবলকারের তার ছিড়ে যায়। এটি মাটি থেকে প্রায় ২৭৪ মিটার(৯০০ ফুট) ওপরে প্রবল বাতাসের মধ্যে ঝুলে ছিল।রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বাট্টগ্রাম বড় বড় পর্বত ও গিরিখাতপূর্ণ। এ কারণে স্থানীয় মানুষ এক গ্রাম থেকে আরেক গ্রামে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-বাজারে যেতে ক্যাবল কার ব্যবহার করেন।

পাকিস্তানের সেনাবাহিনী বলেছে, উদ্ধার অভিযান অত্যন্ত কঠিন ও বিপজ্জনক ছিল। আটকে পড়া আটজনের মধ্যে ১০ থেকে ১৬ বছর বয়সী ছয়জন শিশু ছিল এবং দুইজন প্রাপ্ত বয়স্ক ছিল।

গুলফরাজ নামের একজন প্রাপ্তবয়স্ক স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, শিশুদের মধ্যে একজনের হার্টের সমস্যা রয়েছে এবং কয়েক ঘণ্টা ধরে সে অজ্ঞান ছিল। একজন উদ্ধারকর্মী বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানায়, তাপ ও ভয়ের কারণে একজন শিশু অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তবে তারা দু’জন একই শিশু কিনা তা এখনো স্পষ্ট নয়।

পাকিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার উল হক কাকার জানান, তিনি স্বস্তি পেয়েছেন এবং যারা উদ্ধারে জড়িত তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি নিরাপত্তার জন্য ব্যক্তিমালিকানায় পরিচালিত সমস্ত লিফটগুলো পরিদর্শনের নির্দেশ দিয়েছেন।

পূর্বকোণ/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট