চট্টগ্রাম সোমবার, ২২ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

সামরিক অভিযানের আশঙ্কা, ওয়াগনারের সহায়তা চাইল নাইজারের জান্তা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৬ আগস্ট, ২০২৩ | ২:১৪ অপরাহ্ণ

রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানে গত ২৬ জুলাই নাইজারের ক্ষমতা দখল করে দেশটির সেনাবাহিনীর একাংশ। এ সময় দেশটির প্রেসিডেন্ট মো. বাজোমকে অবরুদ্ধ করে তারা।

 

তবে তাদের এ অভ্যুত্থানকে ভালোভাবে নেয়নি আফ্রিকা অঞ্চলের ১৫ দেশের জোট ইকোয়াস। গত সপ্তাহে জোটটি হুমকি দেয় ৬ আগস্টের (রবিবার) মধ্যে বাজোমকে ক্ষমতায় পুনর্স্থাপন না করলে তাদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান চালানো হবে।

 

আর এ সামরিক অভিযানের আশঙ্কা থেকে রাশিয়ার কুখ্যাত ভাড়াটে সেনাবাহিনী ওয়াগনার গ্রুপের সহায়তা চেয়েছে নাইজারের জান্তা। বার্তাসংস্থা এপি শনিবার (৫ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

 

বার্তাসংস্থাটি আরও জানায়, নাইজারের অভ্যুত্থান নেতা জেনারেল সালিফু মুডি দুদিন আগে পার্শ্ববর্তী দেশ মালিতে যান এবং সেখানে ওয়াগনার প্রতিনিধির সঙ্গে এ ব্যাপারে বৈঠক করেন।

 

সোফান সেন্টারের গবেষক ও সাংবাদিক ওয়াসিম নাসের এ বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ফরাসি সংবাদমাধ্যম ফ্রান্স ২৪ প্রথম এ বৈঠক নিয়ে খবর প্রকাশ করে। পরবর্তীতে মালির তিনটি সূত্র ও একজন ফরাসি কূটনীতিক বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

এ সাংবাদিক বলেন, নাইজারের জান্তার ওয়াগনারকে প্রয়োজন কারণ ক্ষমতা ধরে রাখতে ওয়াগনার তাদের নিশ্চয়তা দেবে।

 

নাম গোপন রাখার শর্তে পশ্চিমা এক সামরিক কর্মকর্তা বলেছেন, তারাও শুনেছেন নাইজারের অভ্যুত্থানকারীরা মালিতে অবস্থানরত ওয়াগনার সেনাদের কাছে সহায়তা চেয়েছেন।

 

এদিকে, ১৫ দেশের জোট ইকোয়াসের সামরিক প্রধানরা গত শুক্রবার সামরিক অভিযান চালানোর পরিকল্পনা চূড়ান্ত করেন। এর আগের দিন ইকোয়াসের একটি প্রতিনিধি দল নাইজারের জান্তা প্রধান জেনারেল আব্দুর রহমান চিয়ানির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিল। কিন্তু তাদের নাইজারে প্রবেশই করতে দেওয়া হয়নি। এরপর ইকোয়াস জোটভুক্ত দেশের সেনাপ্রধানরা সামরিক অভিযান চালানোর জন্য সেনাদের প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দেন।

 

পূর্বকোণ/মাহমুদ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট