চট্টগ্রাম শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

কানাডায় উচ্চশিক্ষা নেয়া তরুণ আসফারের হাতে গরুর পাল

আরাফাত বিন হাসান

১৩ জুন, ২০২৪ | ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ

দেশে এ লেভেল শেষ করে উচ্চশিক্ষার জন্য সুদূর কানাডায় পাড়ি জমান চট্টগ্রামের তরুণ জুনায়েদ খান আসফার। সেখানে পড়াশোনার ফাঁকে একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্রেডিট কার্ড মার্কেটিংয়ের চাকরি পান। ওই চাকরিতে পাওয়া অর্থে নিজের ব্যয় মিটিয়ে মোটামুটি বড় অংকের অর্থ সঞ্চয়ও করেন। বিদেশে স্নাতক শেষে ২০২২ সালে দেশে ফেরেন আসফার। দেশে ফিরেই নিজের উপার্জিত অর্থ কাজে লাগানোর চিন্তা করেন।
পরিবার অবস্থাসম্পন্ন হলেও ছোট থেকে নিজ চেষ্টায় প্রতিষ্ঠিত হওয়ার স্বপ্ন ছিল আসফারের। পাশাপাশি বাড়িতে কোরবানির ঈদে কেনা গরুর প্রতিও বিশেষ ভালো লাগা কাজ করতো। গরুর প্রতি সেই ভালো লাগা থেকে ২০২৩ সালের জুনে দুটি খামার শুরু করেন। এর মধ্যে ‘জুনায়েদ জাভেদ এগ্রো’ নামের একটি খামার গাজীপুরে। এবারের কোরবানির ঈদ ঘিরে ৩০টি গরু মোটাতাজা শুরু করেন খামারটিতে। অন্য খামারটি ঢাকার সাভারে, ২০টি গাভির মাধ্যমে এ খামারে দুধ উৎপাদনের চেষ্টা করেন। আসফারের খামারে মোটাতাজা করা ৩০টি গরুর মধ্যে সবচেয়ে বড় আকারের গরুর ওজন ১৮ মণ। এই গরুর নাম রাখা হয়েছে চেয়ারম্যান, দাম হাঁকা হচ্ছে পাঁচ লাখ। চেয়ারম্যান ছাড়াও আসফারের খামারে এবারের কোরবানির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে মেম্বার নামে বিশাল আকারের আরেকটি গরু। ১৫ মণ ওজনের মেম্বারের দাম হাঁকা হয়েছে সাড়ে তিন লাখ। বাকি গরুগুলোর ওজন ৩৫০ থেকে ৭০০ কেজির মধ্যে। এসব গরুর দাম হাঁকা হয়েছে পৌনে দুই লাখ থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা পর্যন্ত।
জুনায়েদ খান আসফার দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, আমাদের পারিবারিক ব্যবসা আছে। বাবা তার বিজনেসে জয়েন করতে বলেছিলেন। কিন্তু আমার ছোটবেলা থেকে গরু ভালো লাগতো, শান্ত একটা প্রাণী। তাই চিন্তা করলাম এটা যেহেতু আমার ভালো লাগে, এটাই করি। পুরো প্রকল্পে ৮০ লাখ টাকার মতো খরচ হয়েছে। এর মধ্যে ৩০ শতাংশের মতো অর্থ বাবার। বাকি অর্থ পড়াশোনার ফাঁকে আমি চাকরি করে সঞ্চয় করেছিলাম।
এবারের কোরবানির ঈদ ঘিরে জুনায়েদ জাভেদ এগ্রোর প্রায় সব গরুই তোলা হয়েছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের নূর নগর হাউজিং সোসাইটি পশুর হাটে। কোরবানির আগে সবগুলো গরু বিক্রি হবে বলে আশা তার। আসফার বলেন, আশা করছি  সবকটি গরু বিক্রি হবে। সব খরচ বাদ দিয়ে অন্তত তিন থেকে পাঁচ লাখ টাকা প্রফিট হবে ইনশাআল্লাহ।
পূর্বকোণ/এসএ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট