চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

১০০ ঠিকানাবিহীন বয়স্কদের জন্য ‘বেওয়ারিশ বৃদ্ধাশ্রম’

মাদ্রাসা শিক্ষকের অন্যরকম উদ্যোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ১:১৫ অপরাহ্ণ

নগরীর বায়েজিদ থানার অক্সিজেন শীতলঝর্ণা আবাসিক এলাকায় চালু করা হয়েছে ‘বেওয়ারিশ মানবসেবা বৃদ্ধাশ্রম’। দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে ভাড়া বাসায় কার্যক্রম চললেও এখন শীতলঝর্ণা আবাসিক এলাকার ৬ কাঠা জমিতে স্থায়ী ঠিকানা পেয়েছে এ বৃদ্ধাশ্রম। প্রবাসী ইউসুফ আহমেদের দান করা জমিতে মাদ্রাসা শিক্ষক গোলাম রহমান রাব্বানির উদ্যোগে চালু করা বৃদ্ধাশ্রমটিতে ঠিকানাবিহীন ১০০ বয়স্ক নারী-পুরুষ রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 

গতকাল শীতলঝর্ণা আবাসিক এলাকার জমিতে ‘বেওয়ারিশ মানবসেবা বৃদ্ধাশ্রম’র কার্যক্রম উদ্বোধন করেন আমিনুল হক বাবু। এ সময় সাবেক পুলিশ সদস্য শওকত হোসেন পিপিএম, আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামের সহকারী পরিচালক আবু নাসির, জমিদাতা ইউসুফ আহমেদসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

 

আমিনুল হক বাবু বলেন, ডিজিটাল যুগে মানুষ যখন নিজের ঘরে থাকা পিতা-মাতার খবরই নেন না, সে সময় গোলাম রাব্বানী ঠিকানাবিহীন মানুষের জন্য ঠিকানার ব্যবস্থা করেছেন। ইউসুফ আহমেদ জমি ও ঘর দিয়েছেন। এটি মানবিকতার অনন্য নিদর্শন। এর চেয়ে বড় ইবাদত আর কিছু হতে পারে না।  জানতে চাইলে গোলাম রহমান রাব্বানি পূর্বকোণকে বলেন, ২০২১ সালে ঠিকানাবিহীন মানুষদের জন্য ‘বেওয়ারিশ মানবসেবা বৃদ্ধাশ্রম’ চালু করি। প্রথমে মাদ্রাসা শিক্ষক হিসেবে পাওয়া সম্মানি দিয়ে বৃদ্ধাশ্রমে আশ্রয় নেওয়াদের জন্য থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। পরে অনেক সামর্থ্যবান মানুষ এ কাজে সহায়তা করেন।

 

তিনি আরও বলেন, আস্তে আস্তে ঠিকানাবিহীন মানুষের সংখ্যা বাড়তে থাকে। বিভিন্ন এলাকায় পড়ে থাকা বয়স্কদের আমরা এ বৃদ্ধাশ্রমে নিয়ে আসি। কলেবর বাড়তে থাকায় ভাড়া বাসা নেওয়া হয়। এরমধ্যে অক্সিজেনের ইউসুফ ভাই সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন। ঠিকানাবিহীন এসব মানুষের জন্য ৬ কাঠা জমি দান করেন। মাদ্রাসা শিক্ষক রাব্বানি বলেন, গতকাল থেকে ৬ কাঠা জমিতে বানানো সেমিপাকা ঘরে ২২ জন ঠিকানাবিহীন বয়স্কদের আমরা রেখেছি। এখানে অন্তত ১০০ জন মানুষকে রাখা যাবে। তবে ঠিকানাবিহীন ছাড়া অন্য কাউকে আমরা রাখবো না। সবার সহায়তায় এ কার্যক্রম আমরা চালু রাখতে চাই।

 

পূর্বকোণ/আরডি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট