চট্টগ্রাম বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে হত্যা মামলায় ৩ ভাইয়ের আমৃত্যু কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

১০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ৫:০৭ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের আনোয়ারায় মোহাম্মদ শাহেদ নামে একব্যক্তিকে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় ৩ ভাইকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

 

রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের সপ্তম অতিরিক্ত দায়রা জজ আ.স.ম. শহীদুল্লাহ কায়সারের আদালত এই রায় দেন।

 

দণ্ডিতরা হলেন- আনোয়ারার শিলাইগড়ার খলিল মেম্বাবের নতুন বাড়ির মৃত আলি আহমেদের তিন ছেলে হারুন রশিদ (৪০), জাহেদ হোসেন টুন্টু (৩২) ও আনোয়ার হোসেন (৩৬)।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী হাফেজ আহম্মেদ।

 

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১ জুলাই মধ্যম শিলাইগড়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডের রাজা সরদার রোডে মোহাম্মদ শাহেদের বাড়ির পাশের বিলে আসামি জাহেদ হোসেন ভাসা জাল বসিয়ে মাছ ধরতে গেলে তাকে শাহেদ বাধা দেয়। এটি নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে জাহেদ মোবাইলে কল দিয়ে তার দুই ভাই হারুন ও আনোয়ারকে ডেকে আনে। এরপর তারা একসঙ্গে ধারালো কিরিচ, দা ও লোহার রড দিয়ে শাহেদের ওপর হামলা করে। এক পর্যায়ে হারুন দা দিয়ে শাহেদের মাথায় কোপ দেয়। এরপর শাহেদের চিৎকারে শুনে এসে তাকে উদ্ধার করে আনোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার তাকে জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করানোর জন্য নির্দেশ দেন। পরে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আইসিইউ প্রয়োজন হলে হাসপাতালে আইসিইউ খালি না থাকায় তাকে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২ জুলাই সকালে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহেদের মৃত্যু হয়। ঘটনার দিনই তিন ভাইকে আসামি করে আনোয়ারা থানায় শাহেদের চাচা মো. ইউনুছ একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ২৩ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। ২০১৬ সালের ২০ জানুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলায় ২২ জন সাক্ষীর মধ্যে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এই রায় দেন।

 

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আখতার কবির চৌধুরী জানান, সাক্ষ্য প্রমাণে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তিন ভাইকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় জাহেদ হোসেন টুন্টু ও আনোয়ার হোসেন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাদের সাজা পরোয়ানা মূলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আর পলাতক হারুন রশিদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করে গেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট