চট্টগ্রাম রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

৫ বছরে ভোটকক্ষ বাড়ছে ৩ হাজার

মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন

১৭ আগস্ট, ২০২৩ | ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। খসড়া তালিকায় চট্টগ্রামের ১৬ আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২০২০টি। ভোটকক্ষ ১৩ হাজার ৯৫৪টি। ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে ভোটকেন্দ্র ১২১ ও ভোটকক্ষ ৩০৬৭টি বাড়ছে।

 

নির্বাচন কমিশন জানায়, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটার ও ভোটকেন্দ্রের তালিকা প্রস্তুত করা হচ্ছে। ১৬ আসনে সম্ভাব্য ভোটার সংখ্যা ৬৩ লাখ ৩৪ হাজার ৩২ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৩৩ লাখ ৭ হাজার ৬৯২ জন। মহিলা ভোটার ৩০ লাখ ২৬ হাজার ৩০৫ জন। হিজড়া ভোটার ৩৫ জন। ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে ৬ লাখ ৯৬ হাজার ৫৬৭ ভোটার বেশি। ৫ বছরে ভোটার বাড়ছে ১২ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

 

গতকাল বুধবার ঘোষিত খসড়া ভোটকেন্দ্র ও ভোটকক্ষের সংখ্যাও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে বাড়ছে। খসড়া তালিকায় ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২০২০টি। ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে ১২১ ভোটকেন্দ্র বেশি। বৃদ্ধির হার ৬ দশমিক ৩৭ শতাংশ। তালিকায় ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৩ হাজার ৯৫৪টি। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে তা ছিল ১০ হাজার ৮৮৭টি। ৫ বছরে ভোটকক্ষের হার বেড়েছে ২৮ দশমিক ১৭ শতাংশ।

 

চট্টগ্রাম জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোহা. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ৩১ আগস্ট পর্যন্ত খসড়া তালিকার দাবি-আপত্তি জানানো যাবে। আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দাবি-আপত্তি নিষ্পত্তি করা হবে। খসড়া ভোটকেন্দ্রের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে ১৭ সেপ্টেম্বর।

 

ইসি কর্মকর্তারা জানান, খসড়া ভোটকেন্দ্রের তালিকা জেলা নির্বাচন কার্যালয়, উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদ পর্যায়েও প্রকাশ করা হবে। কারও কোনো দাবি বা আপত্তি থাকলে উপজেলা, জেলা নির্বাচন কার্যালয় বা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়েও আবেদন জমা দেওয়া যাবে।

 

আসনভিত্তিক ভোটার ও ভোটকেন্দ্র- ভোটকক্ষ

চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) আসনে খসড়া ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১০৭টি। ভোটকক্ষের সংখ্যা ৭১৭টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৬৫ হাজার ৪০৩ জন। চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনে ভোটকেন্দ্র ১৪২টি। ভোটকক্ষ ৯৮৬টি। ভোটার সংখ্যা চার লাখ ৮৭ হাজার ২৪৬ জন। চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৮৪টি। ভোটকক্ষের সংখ্যা ৫২০টি। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৩৯ হাজার ৭৬৩ জন। চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকু- ও চসিকের ৯ ও ১০ নং ওয়ার্ড) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১২৫টি। ভোটকক্ষ ৯৪৪টি। ভোটার সংখ্যা চার লাখ ২৭ হাজার ৫৯৪ জন। চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী ও চসিকের ১ ও ২ নং ওয়ার্ড) আসনে ভোটাকেন্দ্রের সংখ্যা ১৪৮টি। ভোটকক্ষ ১০৭৫টি। ভোটার সংখ্যা চার লাখ ৭৭ হাজার ৬২৯ জন। চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনে ভোটাকেন্দ্র ৮৪টি ও ভোটকক্ষ ৭০৭টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ১৬ হাজার ৮০০ জন। চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনীয়া ও বোয়ালখালীর শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন) আসনে ভোটাকেন্দ্রের সংখ্যা ১০৩টি। ভোটকক্ষ ৬৫৪টি। ভোটর সংখ্যা দুই লাখ ৯৪ হাজার ২০২ জন। চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী (শ্রীপুরÑখরণদ্বীপ ইউপি ছাড়া) ও চসিকের ৩-৭ নং ওয়ার্ড) আসনে ভোটাকেন্দ্রের সংখ্যা ১৮৪টি। ভোটকক্ষ ১২২২টি। ভোটার সংখ্যা পাঁচ লাখ ১৭ হাজার ৬৫৪ জন। চট্টগ্রাম-৯ (চসিকের ১৫-২৩ ও ৩১-৩৫ নং ওয়ার্ড) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৪৪টি। ভোটকক্ষ ৯৪৯টি। ভোটার সংখ্যা চার লাখ ১২ হাজার ৮২৪ জন। চট্টগ্রাম-১০ (চসিকের ৮, ১১, ১২, ১৩, ১৪ ও ২৪, ২৫, ২৬ নং ওয়ার্ড) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৫০টি। ভোটকক্ষ ১০৯৫টি। ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৮৮ হাজার ৬৬৩ জন। চট্টগ্রাম-১১ (চসিকের ২৭-৩০ ও ৩৬-৪১ নং ওয়ার্ড) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৫২টি। ভোটকক্ষ ১০৬৬টি। ভোটার সংখ্যা ৫ লাখ ১০ হাজার ৬৩৭ জন। চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনে ভোটাকেন্দ্রের সংখ্যা ১০৬টি। ভোটকক্ষ ৬৭৯টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ২৭ হাজার ৬১৩ জন। চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা ও কর্ণফুলী) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১১৮টি। ভোটকক্ষ ৮৩৩টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৪৬ হাজার ৭০৮ জন। চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ ও সাতকানিয়ার কেওচিয়া, কালিয়াইশ, বাজালিয়া, ধর্মপুর, পুরাণগড়, খাগরিয়া ইউনিয়ন) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১০২টি। ভোটকক্ষ ৭২২টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৮৮ হাজার ২১৭ জন। চট্টগ্রাম-১৫ (লোহাগাড়া ও সাতকানিয়ার কেওচিয়া, কালিয়াইশ, বাজালিয়া, ধর্মপুর, পুরাণগড়, খাগরিয়া ইউনিয়ন ছাড়া) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৫৬টি। ভোটকক্ষ ১০৮৬টি। ভোটার সংখ্যা চার লাখ ৮৭ হাজার ৪৬৩ জন। চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১১৫টি। ভোটকক্ষ ৬৯৯টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৪৫ হাজার ৬৪৬ জন।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট