চট্টগ্রাম শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

মুসলিম জনসংখ্যায় বিশ্বের শীর্ষ দেশ

মো. আবদুল মজিদ মোল্লা

৩ আগস্ট, ২০২৩ | ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

ইসলাম বিশ্বের ক্রমবর্ধমান ধর্মীয় জনগোষ্ঠী। পিউ রিসার্চের তথ্যমতে, ২০৩০ সাল নাগাদ বিশ্বে মুসলমানের সংখ্যা ২.২ বিলিয়নে পৌঁছাবে। পৃথিবীতে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ১.৫ শতাংশ, যা পৃথিবীর অন্য যেকোনো ধর্মীয় জনগোষ্ঠীর তুলনায় বেশি। পৃথিবীর এই বিপুলসংখ্যক মুসলমান পৃথিবীর কোন অঞ্চলে বসবাস করছে তার একটি সংক্ষিপ্ত পরিসংখ্যান তুলে ধরা হলো।

জনসংখ্যার হারে বিশ্বের শীর্ষ ১০ মুসলিম দেশ হলো:

১. মালদ্বীপ: দক্ষিণ এশিয়ার দেশ মালদ্বীপের শতভাগ মানুষ ইসলাম ধর্মে বিশ্বাসী। দেশটির নাগরিকরা ইসলাম ধর্ম মেনে চলতে অঙ্গীকারবদ্ধ। মালদ্বীপের সংবিধানের মূল ভিত্তিও শরয়ি আইন।
২. মৌরতানিয়া: ইসলামিক রিপাবলিক অব মৌরতানিয়া উত্তর-পশ্চিম আফ্রিকায় অবস্থিত। দেশটির ৯৯.৯ শতাংশ মানুষ ইসলাম ধর্মের অনুসারী। মৌরতানিয়ার মুসলিমরা মালেকি মাজহাব ও সুন্নি মতাদর্শে বিশ্বাসী।
৩. সোমালিয়া: পূর্ব আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ার দাপ্তরিক নাম ‘ফেডারেল রিপাবলিক অব সোমালিয়া’। দেশটিতে মুসলমানের সংখ্যা ৯৯.৮ শতাংশ। সোমালিয়ান মুসলিমরা সুন্নি মতাদর্শ ও সুফিদর্শনে প্রভাবিত।
৪. তিউনিসিয়া: উত্তর আফ্রিকার দেশ তিউনিসিয়ায় মুসলমানের সংখ্যা ৯৯.৮ শতাংশ। ইসলাম দেশটির রাষ্ট্রধর্ম এবং দেশটির ৯৯ শতাংশ মুসলিম সুন্নি।
৫. আফগানিস্তান: ইসলামিক আমিরাত অব আফগানিস্তান দক্ষিণ এশিয়ার একটি স্থলবেষ্টিত দেশ। দেশটির জনসংখ্যার ৯৯.৭ শতাংশই মুসলিম। আফগানিস্তানের বেশির ভাগ মুসলিম হানাফি মাজহাব ও সুন্নি মতাদর্শে বিশ্বাসী।
৬. আলজেরিয়া: আলজেরিয়ায় মুসলমানের সংখ্যা ৯৯.৭ শতাংশ। উত্তর আফ্রিকার এই দেশটির রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম এবং বেশির ভাগ মুসলমান সুন্নি মতাদর্শে বিশ্বাসী।
৭. ইরান : মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে মুসলমানের সংখ্যা ৯৯.৪ শতাংশ। এদের ভেতর ৯০ থেকে ৯৪ শতাংশই শিয়া মতবাদে বিশ্বাসী। ইরানকেই শিয়া মতাদর্শের প্রাণকেন্দ্র মনে করা হয়।
৮. ইয়েমেন: মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইয়েমেনে মুসলমানের সংখ্যা ৯৯.২ শতাংশ। মুসলমানদের ৬৫ শতাংশই সুন্নি এবং ৩৪.৫ শতাংশ শিয়া মতাদর্শের অনুসারী। ইয়েমেনের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম।
৯. মরক্কো : উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোয় এখনো রাজতান্ত্রিক শাসন চলে। দেশটির ৯৯ শতাংশ নাগরিক মুসলিম। আর তাদের বেশির ভাগই সুন্নি।
১০. নাইজার : পশ্চিম আফ্রিকার দেশ নাইজারে মুসলমানের সংখ্যা ৯৮.৩ শতাংশ। তাদের বেশির ভাগ মালেকি মাজহাব ও সালাফি মতাদর্শে বিশ্বাসী।

উল্লেখ্য, মুসলিম জনসংখ্যার হারে পশ্চিম সাহারার অবস্থান অষ্টম। কেননা দেশটির ৯৯.৪ শতাংশ নাগরিক মুসলিম। তবে রাষ্ট্র হিসেবে পশ্চিম সাহারা জাতিসংঘের স্বীকৃতি লাভ করতে পারেনি।

যেসব দেশে মুসলমানের বসবাস সবচেয়ে বেশি:

১. ইন্দোনেশিয়া: বিশ্বের সবচেয়ে বেশিসংখ্যক মুসলমান বাস করে ইন্দোনেশিয়ায়। দেশটির জনসংখ্যার ৮৪ শতাংশ মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা ২২ কোটি নব্বই লাখ।
২. পাকিস্তান: মুসলিম জনসংখ্যার বিচারে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে পাকিস্তান। দেশটির জনসংখ্যার ৯২ শতাংশ মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা ২০ কোটি ২৬ লাখ ৫০ হাজার।
৩. ভারত: হিন্দুপ্রধান দেশ হলেও ভারতে মুসলমানের সংখ্যা কম নয়। দেশটির জনসংখ্যার ১৪ শতাংশ মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা ১৯ কোটি ৫০ লাখ।
৪. বাংলাদেশ: বাংলাদেশের জনসংখ্যার ৯৩ শতাংশ মুসলিম। তাদের সংখ্যা ১৫ কোটি ৩৭ লাখ।
৫. নাইজেরিয়া: নাইজেরিয়ায় মোট জনসংখ্যার ৫৩ শতাংশ মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা ১০ কোটি ৯২ লাখ ৫৪ হাজার।
৬. মিসর: মিসরের জনসংখ্যার ৯০ শতাংশ মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা ৯ কোটি ৯ লাখ ৮৭ হাজার।
৭. ইরান: ইরানের জনসংখ্যার ৯৯.৪ শতাংশ মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা আট কোটি ৩৪ লাখ ৮৯ হাজার।
৮. তুরস্ক: ইউরোপ-এশিয়ার মিলনস্থলে অবস্থিত তুরস্কে মুসলমানের সংখ্যা ৯৭ শতাংশ। এখানে মুসলমানের সংখ্যা আট কোটি ৬৬ হাজার।
৯. আলজেরিয়া: আলজেরিয়ার জনসংখ্যার ৯৯ শতাংশই মুসলিম এবং তাদের সংখ্যা চার কোটি ৩৪ লাখ ৬০ হাজার।
১০. সুদান: সুদানে মুসলমানের সংখ্যা চার কোটি ২৫ লাখ ৩৫ হাজার, যা মোট জনসংখ্যার ৯৭ শতাংশ। তথ্যসূত্র: ন্যাশনস অনলাইন ডটঅর্গ

 

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট