চট্টগ্রাম শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

বাঁশখালী পৌরসভার ১২২ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

বাঁশখালী সংবাদদাতা

৩১ জুলাই, ২০২৩ | ৫:০৯ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের বাঁশখালী পৌরসভায় ২০২৩-২০২৪ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার (৩১ জুলাই) দুপুর ১২টায় পৌরসভা কার্যালয়ে গণমাধ্যমকর্মী, কাউন্সিলর ও পৌরসভার কর্মকর্তা এলাকার বিভিন্ন পেশার নারী-পুরুষের উপস্থিতিতে এ বাজেট পেশ করেন বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট এসএম তোফাইল বিন হোসাইন ।

 

প্রথম শ্রেণির এই পৌরসভার রাজস্ব বাজেট প্রারম্ভিক স্থিতি, উন্নয়ন বাজেটসহ সবমিলিয়ে আগামী অর্থ বছরের জন্য উন্নয়ন বাজেট ১০৬ কোটি ৪২ হাজার ৯৪৯ টাকা। রাজস্ব খাতে ১৬ কোটি ১৬ লক্ষ ৪৭ হাজার ১৬৩ টাকা। সর্বমোট ঘোষিত বাজেট ১২২ কোটি ১৬ লক্ষ ৯০ হাজার ১১২ টাকা বাজেট ঘোষণা দেন।

 

বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র এডভোকেট তোফাইল বিন হোসাইনের সভাপতিত্বে বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল গফুর। এসময় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, সরল ইউপি চেয়ারম্যান রশিদ আহমদ চৌধুরী, আলাওল ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মো. ইদ্রিস, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা ইলিয়াস সওদাগর, মো. জামশেদ কোম্পানি, আক্তার হোসেন, বাঁশখালী পৌরসভা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক নীলকন্ঠ দাশ, প্যানেল মেয়র রোজিয়া সোলতানা রোজি, হিসাব রক্ষক কর্মকর্তা মো. আবু সুফিয়ান ভূঁইয়া, কাউন্সিলর বদিউল আলম, কাউন্সিলর আবদুল গফুর, কাউন্সিলর কাঞ্চন বড়ুয়া, কাউন্সিলর মো. আক্তার হোসেন, মহিলা কাউন্সিলর সাদেকা নুর খানম বিউটি, রোজিনা আক্তার, কাউন্সিলর জামশেদ আলম, কাউন্সিলর আনছুর আলী, কাউন্সিলর মো. ইসহাক, প্রণব কুমার দাশ, আওয়ামী লীগ নেতা জাফর আহমদ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শহীদুল ইসলাম এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম।

বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র এডভোকেট তোফাইল বিন হোসাইন বলেন, বাঁশখালী পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। আপনাদের সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। সকল শ্রেণির মানুষের সহযোগিতা থাকলে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে। আমি যখন এই পৌরসভার দায়িত্ব গ্রহণ করি রাস্তাঘাট অধিকাংশ কাচা ছিল। ৩০ লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া ছিল। চলতি অর্থ বছরে শত কোটি টাকার পরিকল্পনা গ্রহণ করে হারুন বাজার সড়ক, কেবল কৃষ্ণ মহাজন পাড়া, অলি মিয়ার দোকান থেকে হলিল শাহ পাড়া, বড়ুয়া পাড়া হতে লালার দিঘি পর্যন্ত, ডাক বাংলা সড়ক, ফরেষ্ট অফিস সড়কের শতভাগ কাজ হয়েছে আবার কিছু অংশ চলমান রয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, আমরা আগামী অর্থ বছরের জন্য ১২২ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করতে পেরে আনন্দিত। রাজনৈতিক জীবনে যত অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করেছি, সব ভুলে গেছি নৌকা প্রতীক নির্বাচিত মেয়র হয়ে। এই প্রতীকে নির্বাচনের সুযোগ পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আমার নেতা আধুনিক বাঁশখালীর রুপকার মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ। আমাকে মননোয়ন দিয়ে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি বলে পৌরসভার কাজ করতে সৌভাগ্যবান হয়েছি। সকল সীমাবদ্ধতাকে অতিক্রম করে আমরা যাতে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি, এই বাজেট বাস্তবায়ন করতে পারি তার জন্য আমরা পৌরবাসীসহ সকলের সহযোগিতা চাই। বাঁশখালীর প্রধান ও অভ্যান্তরীণ সড়কগুলোতে সোলার লাইট স্থাপন করা হবে। ঘরে ঘরে পানি পৌঁছানোর জন্য পাইপ বসানো হচ্ছে, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য স্থান নির্ধারণ করে ময়লা ফেলানো হচ্ছে। রাস্তাঘাট ব্রিজ খালভাট নির্মাণের অসমাপ্ত কাজগুলো আগামী ২ বছরের মধ্যে সম্পন্ন করবেন বলে এলাকাবাসীকে আশ্বস্থ করেন।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট