চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে মার্কিন নৌবাহিনীর দুজন আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৪ আগস্ট, ২০২৩ | ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ

চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করার অভিযোগে মার্কিন নৌবাহিনীর ২ নাবিককে গ্রেপ্তার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গ্রেপ্তারকৃত ওই দুই নাবিক হচ্ছেন- ২২ বছর বয়সী জিনচাও ওয়েই এবং ২৬ বছর বয়সী ওয়েনহেং ঝাও।

গ্রেপ্তারকৃত ওই দুই নাবিকের বিরুদ্ধে স্পর্শকাতর সামরিক তথ্য চীনের হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযুক্ত নাবিকদের একজন আবার স্পর্শকাতর ছবি ও ভিডিও পাঠানোর জন্য অর্থও নিয়েছেন।

শুক্রবার (৪ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

বৃহস্পতিবার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনকে স্পর্শকাতর সামরিক তথ্য দেওয়ার অভিযোগে ক্যালিফোর্নিয়ায় মার্কিন নৌবাহিনীর দুই নাবিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

বিবিসি বলছে, মার্কিন নৌবাহিনীর নাবিক জিনচাও ওয়েই মার্কিন নাগরিক হলেও তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন এবং পরে মার্কিন নাগরিকত্ব পান। ২২ বছর বয়সী এই নাবিক একজন চীনা এজেন্টকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় প্রতিরক্ষা তথ্য পাঠানোর ষড়যন্ত্রের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন।

এছাড়া ওয়েনহেং ঝাও নামের দ্বিতীয় ওই নাবিককে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত সংবেদনশীল ছবি এবং ভিডিও পাঠানোর জন্য অর্থ গ্রহণের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অবশ্য এই দুই নাবিকের সঙ্গে একই চীনা এজেন্ট যোগাযোগ করেছিল কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সান দিয়েগোতে এক সংবাদ সম্মেলনে দুই নাবিকের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের কথা ঘোষণা করেন প্রসিকিউটররা। তারা জানান, জিনচাও ওয়েই উভচর যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস এসেক্সে যন্ত্রপাতি ব্যবহারে দক্ষ এক ব্যক্তির সঙ্গী হিসাবে কাজ করছিলেন।

এছাড়া তার কাছে নিরাপত্তা ছাড়পত্র ছিল এবং এই মার্কিন যুদ্ধজাহাজ সম্পর্কে সংবেদনশীল তথ্যে প্রবেশাধিকার ছিল তার। জিনচাও মার্কিন নাগরিক হওয়ার প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময় ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে একজন চীনা এজেন্টের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, জিনচাও ওয়েই তার নিজের এই নাম ছাড়াও প্যাট্রিক ওয়েই নামেও পরিচিত এবং প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত ছবি, ভিডিও, প্রযুক্তিগত ম্যানুয়াল এবং জাহাজের ব্লুপ্রিন্টের জন্য চীনা ওই এজেন্ট তাকে হাজার হাজার ডলার প্রদান করেছিল।

বিচার বিভাগের কর্মকর্তারা বলেছেন, সামুদ্রিক প্রশিক্ষণ মহড়ায় থাকা মার্কিন মেরিন সেনাদের বিশদ বিবরণও চীনা ওই এজেন্টকে দিয়েছেন জিনচাও ওয়েই।

মার্কিন অ্যাটর্নি র‌্যান্ডি গ্রসম্যান বলেছেন, ‘যখন একজন সৈনিক বা নাবিক দেশের চেয়ে নগদ অর্থকে প্রাধান্য দেয় এবং বিশ্বাসঘাতকতার চূড়ান্ত আচরণে জাতীয় প্রতিরক্ষা তথ্য (প্রতিপক্ষের কাছে) হস্তান্তর করে, তখন আমাদের পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।’

অন্যদিকে গ্রেপ্তারকৃত আরেক নাবিক ওয়েনহেং ঝাও তার নিজের এই নাম ছাড়াও টমাস ঝাও নামেও পরিচিত। তিনি লস অ্যাঞ্জেলেসের কাছে নেভাল বেস ভেনচুরা কাউন্টিতে কাজ করতেন। ২০২১ সালে নিজেকে গবেষক হিসেবে জারি করে একজন চীনা এজেন্ট তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

ছদ্মবেশী সেই এজেন্ট মার্কিন নাবিক ওয়েনহেং ঝাওকে জাপানের ওকিনাওয়াতে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে স্থাপন করা রাডার সিস্টেমের ছবি এবং ব্লুপ্রিন্টসহ ছবি ও ভিডিও দেওয়ার জন্য প্রায় ১৫ হাজার মার্কিন ডলার প্রদান করেছিল বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এদিকে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হলে ওয়েইকে ২০ বছরের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের মুখোমুখি হতে হবে। আর ঝাও-এর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হলে তারও সর্বোচ্চ ২০ বছরের সাজা হতে পারে।

গ্রেপ্তারকৃত এই দু’জনকে পৃথক মামলায় আসামি করা হয়েছে। তবে উভয়ের সঙ্গে একই চীনা এজেন্ট যোগাযোগ করেছিল কিনা তা কর্মকর্তারা বলতে পারেননি।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট