চট্টগ্রাম রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

নতুন ইঞ্জিনে চলবে ট্রেন

চট্টগ্রাম-সিলেট রুট

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৭ আগস্ট, ২০২৩ | ১২:৫২ অপরাহ্ণ

এবার চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে নতুন ইঞ্জিন (লোকোমোটিভ) দিয়ে ট্রেন চালানোর উদ্যোগ নিয়েছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল। গত ২৩ আগস্ট থেকে এই রুটে দক্ষিণ কোরিয়া থেকে আনা ৩০০০ সিরিয়ালের নতুন ইঞ্জিনের ট্রায়াল রান শুরু হয়েছে। উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন এসব নতুন ইঞ্জিন দিয়ে ট্রেন চললে যাত্রীরা দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন। পুরোনো ইঞ্জিন পথে পথে বিকল হয়ে যাত্রাপথে যে দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়- তা থেকে রক্ষা পাবেন।

 

চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে ট্রেন চালাতে এতদিন ২৯০০ সিরিয়ালের ইঞ্জিন ব্যবহার করা হতো। যেগুলো ম্যানুয়াল এবং ১ হাজার ৫০০ হর্স পাওয়ারের। নতুন ৩০০০ সিরিয়ালের ইঞ্জিনগুলো পুরোটাই ডিজিটাল সিস্টেমে চলবে। এসব ইঞ্জিন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। যা চলবে ইঞ্জিনের শক্তি থেকে। এ কারণে ইঞ্জিনের শক্তিও বেশি। নতুন ইঞ্জিনগুলো ২ হাজার ২০০ হর্স পাওয়ারের। এছাড়া নতুন ইঞ্জিনগুলোতে রয়েছে নানা অত্যাধুনিক ব্যবস্থা।

 

সংশ্লিষ্টরা জানান- গত ২৩ আগস্ট চট্টগ্রাম থেকে সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া পাহাড়িকা এক্সপ্রেসে পরীক্ষামূলকভাবে ৩০০০ সিরিয়ালের ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়। ৩০১৪ নম্বর ইঞ্জিন ব্যবহার করে এদিন সকালে সিলেটের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ছেড়ে যায় পাহাড়িকা এক্সপ্রেস। বিকালে কোনো রকম যান্ত্রিক ত্রুটি ছাড়ায় এই ট্রেন সিলেট পৌঁছে। পরীক্ষামূলক যাত্রা সফল হওয়ায় এখন নিয়মিত এই রুটে নতুন ইঞ্জিন ব্যবহার করা হবে।

 

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের পরিবহন বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের পর এখন চট্টগ্রাম-সিলেট রুটেও নতুন ইঞ্জিন দিয়ে ট্রেন চালানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রথমে আমরা পরীক্ষামূলকভাবে নতুন ইঞ্জিন দিয়ে ট্রেন চালিয়েছি। এটি সফল হওয়ায় দ্রুত নতুন ইঞ্জিন দিয়ে নিয়মিত ট্রেন চালানো হবে।

 

চট্টগ্রাম-ঢাকার পর রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রুট চট্টগ্রাম-সিলেট। তবে এই রুটে চলাচল করে মাত্র দুটি আন্তঃনগর ট্রেন। এরমধ্যে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ১৯৮৬ সালে এবং উদয়ন এক্সপ্রেস ১৯৮৮ সালে চলাচল শুরু করে। গত ৩৫ বছর এই রুটে নতুন কোনো আন্তঃনগর ট্রেন চালু করতে পারেনি রেলওয়ে।

 

চলাচল করা দুটি ট্রেনের মধ্যে চট্টগ্রাম থেকে সকাল ৭টা ২০ মিনিটে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস এবং রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে উদয়ন এক্সপ্রেস সিলেটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। অন্যদিকে সিলেট থেকে সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস এবং রাত ৮টা ৩০ মিনিটে উদয়ন এক্সপ্রেস চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে।

পূর্বকোণ/আরডি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট