চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪

সর্বশেষ:

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫

উখিয়া সংবাদদাতা

২ জুন, ২০২৪ | ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এক পুলিশ সদস্যের উপর হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনায় পাঁচজন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

গ্রেপ্তাররা হল- নাজির হোসেন, মো. সাকের, নুর ইসলাম, সৈয়দ আলম ও আমেনা খাতুন। এরা সবাই উখিয়ার ১৬ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৫ ব্লকের বাসিন্দা।

 

জানা যায়, শুক্রবার (৩১ মে) রাত ৯টার দিকে শফিউল্যাহ কাটা পুলিশ ক্যাম্পে অভিযানে গেলে এক পুলিশ সদস্যকে অতর্কিত হামলার ঘটনা ঘটে।

 

এ ব্যাপারে শফি উল্লাহ কাটা পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বরত সহকারী পুলিশ সুপার মো. সাইদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসামিদের উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়।

 

শনিবার (১ জুন) ৮ এপিবিএন অধিনায়ক (অতিরিক্ত ডিআইজি) মো. আমির জাফর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, শফিউল্যাহ কাটা পুলিশ ক্যাম্পের টহলদল বের হলে মাঠের উত্তর পাশে ৫-৭ জন রোহিঙ্গা বসেছিল।

 

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একজনের হাতে একটি ওয়ান শুটারগান দেখতে পেয়ে তাকে আটক ও অস্ত্র উদ্ধারের চেষ্টা করলে রোহিঙ্গারাও পুলিশের অস্ত্র কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন।

 

এ ঘটনায় উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে অস্ত্রধারী রোহিঙ্গা উখিয়ার ১৬ নম্বর ক্যাম্পের বি-৫ ব্লকের বাসিন্দা সাবেক মাঝি কালুর ছেলে মো. আমিন (২০) চিৎকার দেয়। তার চিৎকারে আশপাশের শেড থেকে শতাধিক রোহিঙ্গারা দা-লাঠি নিয়ে ঘটনাস্থলে আসে।

 

কালুর স্ত্রী সেতারা বেগম তার হাতে থাকা দা দিয়ে টহল দলের এপিবিএন কনস্টেবল শাখাওয়াত হোসেনের মাথায় কোপ মারে। এতে মাথার বাম পাশে রক্তাক্তসহ জখম হলে তাৎক্ষণিক আহত কনস্টেবল শাখাওয়াতকে উখিয়ার জামতলী এমএসএফ হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে এ ঘটনায় মামলা করা হয়।

 

 

পূর্বকোণ/মানিক/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট