চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

খেলতে গিয়ে আগুনে পুড়ে মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু মহেশখালীতে

মহেশখালী সংবাদদাতা

১ মে, ২০২৪ | ৩:৫৭ অপরাহ্ণ

মহেশখালীতে লাকড়ির চুলার পাশে খেলতে গিয়ে কেরোসিন ছিটকে পড়ে আগুনে পুড়ে যাওয়া ফারুকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) রাত সোয়া ১টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

 

নিহত ওমর ফারুক উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের ফকিরাঘোনা এলাকার আবুল কালামের ছেলে। সে কালারমার ছড়া মঈনুল ইসলাম আলিম মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

জানা গেছে, গত ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় বাড়িতে পড়া শেষ করে তীব্র গরম সইতে না পেরে বাড়ির বাইরে ছোট বাচ্চাদের সঙ্গে খেলা করছিল ফারুক। দৌড়াদৌড়ি করতে গিয়ে রান্নাঘরের পাশে বাড়ির উঠানে বসানো লাকড়ির চুলার পাশে গিয়ে পড়ে যায় শিশু ফারুক। এ সময় চুলার পাশেই ছিলো কেরোসিন ভর্তি বোতল। শিশুটি দৌড়ে গিয়ে ওখানে পড়ার সাথে সাথেই কেরোসিন ছিটকে পড়ে ফারুকের শরীরে। মুহূর্তেই উত্তপ্ত চুলা থেকে আগুন লেগে দাউদাউ করে জ্বলতে থাকে ফারুকের শরীর। পরিবারের লোকজন পানি ঢেলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও এরইমধ্যে ঝলসে যায় তার শরীর। পরে তাকে দ্রুত চমেক হাসপাতালে নিয়ে যায়। টানা ৬দিন চমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন থাকার পর গতকাল রাতে তার মৃত্যু হয়।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট