চট্টগ্রাম রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

মিয়ানমার থেকে ছোড়া গুলিতে বাংলাদেশি গুরুতর আহত

নাইক্ষ্যংছড়ি সংবাদদাতা

১১ মার্চ, ২০২৪ | ৮:৫২ অপরাহ্ণ

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সামরিক জান্তা বাহিনীর সাথে বিদ্রোহী গ্রুপের মধ্যে তুমুল লড়াই চলছে। তাদের ছোড়া গুলির শিষা নাইক্ষ্যংছড়ির সদর ইউনিয়নে আশারতলী গ্রামের জামছড়ি সীমান্তে উড়ে এসে পড়ছে। এতে ছাবের আহাম্মেদ (৪৮) নামে এক ইউপি সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন।

 

সোমবার (১১ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪টায় এ ঘটনা ঘটেছে। আহত ছাবের আহাম্মেদ সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার সকাল থেকে মিয়ানমারে সীমান্তবর্তী ক্যাম্প দখলকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলি হচ্ছিল। এ সময় মিয়ানমার থেকে একটি গুলি এসে পড়ছে বাংলাদেশে। এতে ইউপি মেম্বার গুরুতর আহত হয়েছেন।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার মুহাম্মদ আলী হোসেন। তিনি জানান, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সে দেশের বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মি মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর অংথাপায়া ক্যাম্প আক্রমণ করতে গিয়ে দুই পক্ষে গোলাগুলি হয়। বিকাল সাড়ে ৪টায় গোলাগুলি চলাকালীন একটি গুলি এসে পড়ে এপারে। সে সময় সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার ছাবের আহাম্মদের পায়ে লাগে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে তাকে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর হাসপাতালে দ্রুত নিয়ে গেলে তখন দায়িত্বরত চিকিৎসক গুরুতর আহত দেখে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে পরামর্শ দেন। তাঁর আহতের খবর ছড়িয়ে পড়াতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী। আতঙ্ক, উৎকণ্ঠায় রাত পার করছেন তারা।

 

এদিকে, অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষীবাহিনী (বিজিপি) ১৪৬ সদস্যকে জামছড়ি নজরুল আলম কোম্পানির রাবার বাগান থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি সদরে নিয়ে আসা হচ্ছে বলে জানা যায়। তবে তাদেরকে কোথায় আশ্রয় দেয়া হবে তা এখনো জানায়নি।

 

 

পূর্বকোণ/শামীম/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট