চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

রাউজানে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেপ্তার ৫

রাউজান সংবাদদাতা

৬ মার্চ, ২০২৪ | ১১:৪৬ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের রাউজানে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার (৬ মার্চ) বিকাল ৫টায় এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার অজয় দেবশীল।

 

গ্রেপ্তাররা হল- চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের কেশবপুর গ্রামের মৃত সালেহ আহামদ মিস্ত্রী প্রকাশ আলী আকবরের ছেলে আবুল কালাম প্রকাশ ইউসুফ ভান্ডারী (৫০), একই উপজেলার ভাটিয়ারী ইউপির ১ নম্বর ওয়াডের জাহানাবাদ গ্রামের প্রয়াত ফজল হকের ছেলে মো. দিদার (৫৫), বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার কাকিলা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের রামনগর গ্রামের বাসিন্দা সীতাকুণ্ড উপজেলা বসবাসকারী মৃত শওকত আলীর ছেলে মো. খলিল (৪৫), সলিমপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর সলিমপুর গ্রামের মৃত রাজা মিয়ার ছেলে মো. তসলিম উদ্দিন প্রকাশ তসলিম ড্রাইভার (৪২) ও ফেনী জেলার সোনাগাজী উপজেলার মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও সীতাকুণ্ড উপজেলা বসবাসকারী মৃত আবদুস ছালামের ছেলে মো. আনেয়ার (৩৭)।

 

সেকেন্ড অফিসার অজয় দেবশীল জানান, সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার বাগোয়ান ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে পশ্চিম গশ্চি গ্রামের চট্টগ্রাম-কাপ্তাই মহসড়কের রাধাকৃষ্ণ মন্দিরের গেটের সামনে পাকা রাস্তার উপর থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

 

তিনি জানান, গ্রেপ্তারদের কাছ থেকে একটি কাটার, দুইটি ধারালো দা, একটি ধারালো ছোরা, একটি হেক্সো মেশিন (ব্লেড সহ), একটি স্ক্রু ড্রাইভার, সাতটি ধারালো কাটার ব্লেড, একটি হেক্সো ব্লেড এবং ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত চট্টমেট্রো-গ-১১-৯২৩৫ নম্বরের একটি প্রাইভেট কার (প্রো-বক্স) জব্দ করা হয়।

 

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তার পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে ডাকাতির মামলা রুজু শেষে চট্টগ্রাম আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ইউসূফ ভান্ডারীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডের ১২টি মামলা রয়েছে। এছাড়া দিদার ছয়টি, তসলিম ড্রাইভার দুটি মামলার আসামি।

 

 

পূর্বকোণ/জাহেদ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট