চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

মিয়ানমারে পাচারকালে খাদ্যদ্রব্য ও জ্বালানি তেল জব্দ

টেকনাফ সংবাদদাতা

৩ মার্চ, ২০২৪ | ১০:৩৭ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে মিয়ানমারে পাচারকালে বিপুল পরিমাণ খাদ্যদ্রব্য ও জ্বালানি তেল উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। এ সময় ছয়জন চোরাকারবারিকে আটক করা হয়। তাদের টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

 

রবিবার (৩ মার্চ) উপজেলার বড়ইতলী ও শাহপরীরদ্বীপে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

 

এ তথ্য নিশ্চিত করে কোস্টগার্ড মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার খন্দকার মুনিফ তকি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শাহপরীরদ্বীপ সংলগ্ন ঝাউবন এলাকায় ভোররাতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় একটি ইঞ্জিনচালিত কাঠের বোটকে ধাওয়া করে নাফ নদীর মোহনা থেকে আটক করা হয়। বোটে তল্লাশি চালিয়ে ২১ বস্তা রসুন, ১৭ বস্তা চিনি, তিন বস্তা বিস্কুট ও আনুমানিক ৩৭ লিটার ডিজেল জব্দ করা হয়। অভিযানে পাঁচজন চোরাকারবারিকে আটক করতে সক্ষম হয়।

 

তারা হল- মো. তৈয়ব (৪৩), মো. সলিম (২৬), মো. জসিম উদ্দিন (১৮), মো. মুজিবুল্লাহ (১৮) ও রিদওয়ান (২২)। তারা সকলেই টেকনাফ থানাধীন মিঠাপানিরছড়া ১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা।

 

এছাড়া একইদিন বিসিজি স্টেশন টেকনাফ কর্তৃক নাফনদী সংলগ্ন বড়ইতলী এলাকায় পৃথক আরেকটি অভিযানে দুটি ডিঙি নৌকায় তল্লাশি চালিয়ে পাচারের উদ্দেশ্যে রাখা চার বস্তা ডাল, চার বস্তা চিনি, সাত বস্তা ময়দা, ১২০ লিটার অকটেন, ৩৫ প্যাকেট বিস্কুট, ১০ প্যাকেট চকলেট, চার প্যাকেট চানাচুর, তিন প্যাকেট সুজি, ১০ প্যাকেট হুইল সাবান, এক প্যাকেট নুডলস, দুই প্যাকেট আটা, এক কেজি মরিচের গুঁড়ো, এক কেজি চিনি, চার কেজি ডাল, পাঁচ লিটার পাম ওয়েল, দুটি স্টার শিপ দুধ ও অন্যান্য দ্রব্যসামগ্রীসহ শফিউল্লাহ (৪৮) নামে একজন চোরাচালানিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি টেকনাফ থানাধীন বড়ইতলী ৯ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা।

 

জব্দকৃত মালামালসমূহের পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ কাস্টমস কর্তৃপক্ষের নিকট এবং আটকদের টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

 

পূর্বকোণ/কাশেম/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট