চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

টেকনাফ সীমান্তে থেমে থেমে হচ্ছে গোলার বিকট শব্দ

‘জীবনে কখনও এমন আওয়াজ পাইনি’

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ | ৩:৫০ অপরাহ্ণ

‘জীবনে কখনও এমন গুলির আওয়াজ পাইনি আমরা। গোলার এমন ভয়ঙ্কর আওয়াজ ছিল, আমার দেড় বছরের শিশু ভয়ে ঘুম ভেঙে কেঁদে ওঠে। কয়েকদিন ধরে যে গোলার শব্দ পাওয়া যাচ্ছে, তা শিশুদের জন্য খুবই ভয়ঙ্কর সমস্যা হয়ে দাাঁড়িয়েছে।’

 

এভাবেই টেকনাফ সীমান্তের ভয়াবহ পরিস্থিতির বর্ণনা দিচ্ছিলেন শাহপরীরদ্বীপের বাসিন্দা আমান উল্লাহ। তিনি আরও বলেন, রাতে গোলার শব্দ পাওয়া না গেলেও গতকাল রবিবার সকাল ৮টা থেকে মিয়ানমার সীমান্তের গোলার আওয়াজ বাড়ি পর্যন্ত পাওয়া গেছে।

 

মিয়ানমারের সামরিক জান্তা ও বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর মধ্যকার চলমান যুদ্ধে গত কয়েকদিনের মতোই টেকনাফ সীমান্তে অব্যাহত রয়েছে গোলার শব্দ। শাহপরীরদ্বীপ সীমান্তে থেমে থেমে গোলার শব্দ ভেসে আসছে। সীমান্তের ওপারে যুদ্ধ তীব্র হওয়ায় অনুপ্রবেশের চেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে। তবে সীমান্তে বিজিবি ও কোস্টগার্ড নাফ নদীতে টহল জারি রেখেছে।

 

এদিকে, রবিবার সকাল থেকে টেকনাফ শাহপরীরদ্বীপ সীমান্তে গোলার শব্দ পান স্থানীয়রা। হোয়াইক্যং কানজরপাড়া-খারাংখালী এলাকায়ও বিকট গুলির শব্দ শুনেছেন লোকজন।

 

হোয়াইক্যং সীমান্তের বাসিন্দা মোহাম্মদ সাইফুল বলেন, শনিবার রাতে আমাদের সীমান্তে দুই ঘণ্টা থেমে থেমে গোলাবর্ষণ চলছিল। এপারের ঠিক ওপারে বলিবাজারে আরাকান আর্মির সঙ্গে সেনাবাহিনীর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। যার কারণে এপারে গোলার শব্দ পাওয়া যায়।

 

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী বলেন, সীমান্তে প্রায়সময় গোলাগুলির শব্দ পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু সীমান্তে নাফ নদী থাকার কারণে আমরা অনেকটা সেফ জোনে আছি। তবুও সীমান্তে বসবাসকারীদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট