চট্টগ্রাম বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ২ জন নিহত

উখিয়া সংবাদদাতা

২১ ডিসেম্বর, ২০২৩ | ১১:০৭ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পৃথক ঘটনায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলি ও ছুরিকাঘাতে হেড মাঝিসহ ২ জন রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে। 
গতকাল (২০ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ২ টা ও ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে উপজেলার ইরানি পাহাড় ১৭ নম্বর ক্যাম্পে সি ব্লক ও মধুরছড়া ৪ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পৃথক হত্যাকাণ্ড দুটি ঘটে।
নিহতরা হলেন,১৭ নম্বর ক্যাম্পের ৭৮/সি-ব্লকের মৃত মোহাম্মদ আমিনের ছেলে আব্দুল্লাহ (২৩) এবং ক্যাম্প -৪ এক্সঃ মধুরছড়া এফ-ব্লকের মৃত ছৈয়দ আহাম্মদের ছেলে নাদির হোসেন (৩৯)।
উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো শামীম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বুধবার (২০ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ২ টার দিকে একদল দুষ্কৃতকারী ৪ নম্বর মধুরছড়া ক্যাম্পের এফ ব্লকের হেড মাঝি নাদির হোসেনকে ঘর থেকে ডেকে রাস্তায় নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত ও গুলি করে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। নাদির হোসেন ক্যাম্পের এফ ব্লকের হেড মাঝি (কমিউনিটি লিডার)।
অপর দিকে একই দিন ভোরে ইরানি পাহাড় ১৭ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি ব্লকে ৫/৬ জনের একদল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী ক্যাম্পের বাসিন্দা মোহাম্মদ আমিনের পুত্র আব্দুল্লাহকে ঘর থেকে অস্ত্রের মুখে বের করে পাশে বাজারের রাস্তায় নিয়ে আসে। সন্ত্রাসীরা এক পর্যায়ে আব্দুল্লাহকে রাস্তায় ফেলে বুকে উপর্যুপরি গুলি করে।
খবর পেয়ে এপিবিএন পুলিশ ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে সন্ত্রাসীরা সটকে পড়ে। পুলিশ গুরুতর আহত গুলিবিদ্ধ আব্দুল্লাহকে ক্যাম্পের একটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ নিহত রোহিঙ্গা যুবক আব্দুল্লাহ ও হেড মাঝি নাদিম হোসনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
ওসি শামীম হোসেন আরও জানান, ঘটনার পর পরই উক্ত এলাকায় এপিবিএন পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে। ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা ভিত্তিক সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা এই হত্যাকাণ্ড দুটি সংঘটিত করেছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছেন ক্যাম্পে নিরাপত্তা দায়িত্বে নিয়োজিত এপিবিএন পুলিশ।
পূর্বকোণ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট