চট্টগ্রাম সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪

সর্বশেষ:

কাপ্তাইয়ে পর্যটকদের জন্য নির্মিত হল ‘নিসর্গ প্রিমিয়াম পড হাউস’

বিজ্ঞপ্তি

৬ নভেম্বর, ২০২৩ | ১১:৫১ অপরাহ্ণ

পর্যটকদের নজর কাড়তে এবার রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার শিলছড়িতে নির্মিত হল দৃষ্টিনন্দন ‘নিসর্গ প্রিমিয়াম পড হাউস’। শুক্রবার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় প্রিমিয়াম পড হাউসগুলোর উদ্বোধন করা হয়। নতুন তৈরি প্রিমিয়ার পড হাউসের সংখ্যা ৫টি। প্রতিটি হাউসই আধুনিকতার ছোঁয়ায় পরিপূর্ণ।

 

কাপ্তাই ৪১ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আমীর হোসেন মোল্লা প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে প্রিমিয়াম পড হাউসগুলোর উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি বলেন, প্রকৃতির অনিন্দ্য সুন্দর কাপ্তাই উপজেলায় পর্যটনের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। পৃথিবীর অনেক দেশ ট্যুরিজমকে কাজে লাগিয়ে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছে। আমরাও আমাদের পর্যটন স্পটগুলোকে কাজে লাগিয়ে স্বাবলম্বী হতে পারি।

 

উদ্বোধনকালে কাপ্তাই জোনের (৫৬ বেঙ্গল) অধিনায়ক লে. কর্নেল নূর উল্ল্যাহ জুয়েল, কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মহিউদ্দিন, কাপ্তাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন, নিসর্গ রিভার ভ্যালির পরিচালক নাছির উদ্দিন এবং নিসর্গ পড হাউসের পরিচালক সাকিব নাবিলসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

 

নিসর্গ পড হাউসের পরিচালক সাকিব নাবিল বলেন, থাইল্যান্ডে একটি পড হাউসে ঘুরতে গিয়ে আমি বিমোহিত হয়। পরে নিজের দেশেই এমন ভিন্ন কিছু করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। তাই বাংলাদেশে সর্বপ্রথম কাপ্তাইয়ে এই পড হাউস আমরা তৈরি করেছি। পর্যটন শহর কাপ্তাই ইতোমধ্যে পর্যটকদের কাছে দিন দিন আকর্ষণীয় হয়ে উঠছে। আমরা ইতোমধ্যে যে ৯টি পড হাউস তৈরি করেছি, সেইগুলো পর্যটকদের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। তাই আরও বেশি সংখ্যক পর্যটক যাতে একসাথে রাত্রিযাপন করতে পারে, তাই নতুন করে প্রিমিয়াম পড হাউস তৈরি করেছি। বিশেষ করে কর্ণফুলী নদীর পাড়ে সুন্দর মনোরম পরিবেশে রাত্রীযাপন করার জন্য বেস্ট একটি অপশন হচ্ছে আমাদের নিসর্গ পড হাউস।

 

নিসর্গ রিভার ভ্যালির পরিচালক নাছির উদ্দীন বলেন, আধুনিকতার সব ধরনের সুযোগ সুবিধা ও পর্যটকদের চাহিদাকে মাথায় রেখে আমরা আরও ৫টি প্রিমিয়াম পড হাউস নির্মাণ করেছি। যার নামকরণ করা হয়েছে প্রিমিয়াম পড হাউস। এখানে প্রতিটি রুম তৈরি করা হয়েছে কাঠ দিয়ে এবং প্রতিটি রুম শীতাতাপ নিয়ন্ত্রিত। প্রতিটি রুমে কমপক্ষে চারজনের থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিটি রুমের পাশে তৈরি করা হয়েছে কাঠের গোল ঘর। এই গোল ঘরে বসে পর্যটকরা কর্ণফুলী নদীর দৃশ্য অবলোকন করতে পারবেন।

 

পূর্বকোণ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট