চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

পশ্চিমাদের প্রত্যক্ষ সমর্থনে ইসরায়েল গাজায় গণহত্যা চালাচ্ছে- মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী

হাটহাজারী সংবাদদাতা

১৯ অক্টোবর, ২০২৩ | ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বিশ্ব দরবারে মানবনিধনের এই জঘণ্য ঘটনার সম্মিলিত প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী।

 

তিনি বলেন ভেদাভেদ ভুলে সকল রাজনৈতিক দল ও সবগুলো ধর্মীয় সংগঠনকে নিয়ে এক রাষ্ট্রীয় সভার আয়োজন করুন। সেখানে সকলের বক্তব্য শুনে সম্মিলিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে, বিশ্বসভাকে জানিয়ে দিন, বাংলাদেশ এই গণহত্যার অবসান চায়, বাংলাদেশ এই গণহত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার চায়।

 

বুধবার (১৮ অক্টোবর) হেফাজত আমীর মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী স্বক্ষরিত সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, শত বছরের নিষ্ঠুরতার শিকার প্যালেস্টাইনের মানুষের প্রতিবাদের শেষ আশ্রয়স্থল গাজা ছিটমহলের দিকে আমি দেশবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। ৭৫ বছর ধরে মজলুম ফিলিস্তিনিদের উপর ইহুদীবাদি দখলদার ইজরাইল যে গণহত্যা চলাচ্ছে, তা আজ কেন্দ্রীভূত হয়েছে গাজা উপত্যকায়। নির্বিচারে লাখ লাখ মিসাইল ছোড়া হচ্ছে শিশু, নারী, বৃদ্ধ ও পঙ্গু বেসামরিক মানুষের উপর। পশ্চিমা সভ্যতার নামে যারা বিশ্ব শাসন করছে, তাদের প্রত্যক্ষ সমর্থনে তেইশ লাখ গাজাবাসীর উপর চলছে নিষ্ঠুর গণহত্যা। এভাবে নির্বিচারে পশুও হত্যা করে না মানুষ!

 

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববাসীর চোখের সামনে চলমান এই পৈশাচিকতা, বর্বরতা, গণহত্যা অবিলম্বে বন্ধ করুন। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রতিটি সদস্য ও সকল সমর্থক তীব্র ভাষায় এর নিন্দা ও প্রতিবাদ করে। এটা মানবতা বিরোধী অপরাধ। দুনিয়ার বুকে এই গণহত্যার বিচার হতে হবে।

 

আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী বলেন, পশ্চিমা বিশ্বের সমর্থনপুষ্ট ইসরায়েল সরকার ফিলিস্তিনের গাজায় হাসপাতালে হামলা চালিয়ে শত শত বেসামরিক নাগরিককে হত্যার ঘটনায় আমরা ‘বাকরুদ্ধ’ হয়ে পড়েছি। আমরা এই বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় কঠোর নিন্দা এবং হতাহত মজলুমদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছি। একই সাথে এই নিষ্ঠুর অপরাধের বিচার চেয়ে বাংলাদেশের সকল আলেম-ওলামা ও তাওহিদী জনতা মহান আল্লাহর দরবারে দুই হাত তুলে ফরিয়াদ জানাচ্ছি।

 

পূর্বকোণ/খোরশেদ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট