চট্টগ্রাম শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪

অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কানুনগোকে মারধরের অভিযোগ

চকরিয়া-পেকুয়া সংবাদদাতা

১১ অক্টোবর, ২০২৩ | ৭:৩৯ অপরাহ্ণ

অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কক্সবাজারের পেকুয়ায় আবুল হাসেম টুনু নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভূমি অফিসে ঢুকে কানুনগোকে মারধরের অভিযোগ ওঠেছে। আবুল হাসেম উপজেলা সদর ইউনিয়নের মৌলভী পাড়া এলাকার মৃত নুরুল আলমের ছেলে।

 

এ ব্যাপারে পেকুয়া ভূমি অফিসের কানুনগো (ভারপ্রাপ্ত) সাজ্জাদ হোসেন বাদী হয়ে পেকুয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। আবুল হাসেম টুনু ছাড়াও অভিযোগে হরিণাফাঁড়ি এলাকার আবদুল খালেকের ছেলে মামুনুর রশিদকে আসামি করা হয়েছে।

 

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) দুপুর ১টার দিকে আবুল হাসেম তার সঙ্গী মামুনুর রশিদকে নিয়ে উপজেলা ভূমি অফিসের তৃতীয় তলার কানুনগোর রুমে যান। এ সময় তারা কানুনগোকে অনৈতিকভাবে একটি নামজারি মামলা অনুমোদনের সুপারিশ করার জন্য চাপ দেয়। ওই নামজারি মামলা বিধিসম্মত না হওয়ায় তা নাকচ করে দেন কানুনগো সাজ্জাদ হোসেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে করতে কানুনগোকে মারধর শুরু করে আবুল হাসেম ও মামুন।

 

পেকুয়া ভূমি অফিসের কানুনগো ভুক্তভোগী সাজ্জাদ হোসেন বলেন, রবিকর মিত্র নামের এক ব্যক্তি একটি নামজারী খতিয়ানের আবেদন করেন। আবেদনে যে খতিয়ান থেকে আবেদনকারী ভূমি দাবি করেছেন সেখানে তার দাতাপক্ষের নাম সঠিক নেই। তাই আবেদনটি নামঞ্জুর করার পক্ষে আমি মত দিই। এতে আবেদনকারীর পক্ষ হয়ে আবুল হাসেম নামের এক ব্যক্তি আমার কার্যালয়ে ঢুকে আমাকে মারধর করেন। বিভিন্ন মাধ্যমে এখন তারা আমাকে প্রাণনাশের হুমকিও দিচ্ছে।

 

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সুদীপ্ত শেখর ভট্টাচার্য বলেন, পেকুয়া ভূমি অফিসের ঘটনায় একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করে আবুল হাসেম টুনু জানান, কানুনগো এক বছর ধরে আমার কাজটি করে দিচ্ছে না। উল্টো গত শনিবার নামজারীর আবেদনটি খারিজ করে দেয়। তাই তাকে একটু বকাঝকা করেছি। মারধর করিনি।

 

পূর্বকোণ/জাহেদ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট