চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

চট্টগ্রামে ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ, আতঙ্কে দিন পার রায়পুরবাসীর

নিজস্ব প্রতিবেদক

৮ জুলাই, ২০২৩ | ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ

আনোয়ারা উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের গহিরা (বাইঘ্যার ঘাট) এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে বেড়িবাঁধ। জোয়ার ও ভারী বর্ষণের কারণে যে কোন সময় বেড়িবাঁধ ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। বাঁধ রক্ষায় দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন তারা।

 

বিষয়টি মন্ত্রীর নজরে আনতে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় সার্সন রোডস্থ ভূমিমন্ত্রীর বাসায় আসেন স্থানীয়রা। তারা বিষয়টি মন্ত্রীকে অবগত করলে তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে বাঁধ রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশনা দেয়া হবে বলে জানান।

 

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, স্থায়ী বাঁধ ব্লক না থাকায় কিছুদিন পর পর বাইঘ্যার ঘাট এলাকায় ভাঙন দেখা দেয়। এ অংশে প্রায় ১০০ মিটারের মত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। যে কোন সময় তা সাগরে তলিয়ে যেতে পারে। গত কয়েকদিন ধরে বাতাসের বেগ বাড়ায় ঝুঁকিপূর্ণ অংশে ভাঙন দেখা দিয়েছে।

 

শুক্রবার দুপুরে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, বেড়িবাঁধ রক্ষার্থে দেয়া টিউবগুলো জোয়ারের পানি এবং ঢেউয়ের কারণে ধীরে ধীরে সরে যাচ্ছে। প্রতিটি ঢেউয়ের সাথে সাথে এক টুকরো করে করে বাঁধের মাটি সাগরে তলিয়ে যাচ্ছে। বেড়িবাঁধের অবস্থা দেখতে স্থানীয় জনসাধারণ বেড়িবাঁধের আশপাশে ঘুরতে থাকে।

 

স্থানীয় আবু ছালেক জানান, ঝুঁকিপূর্ণ অংশটি রক্ষার্থে রমজানের আগেও ৪২টি টিউব (জিও ব্যাগ) দেয়া হয়েছে। বর্তমানে এসব টিউবের মধ্যে কয়েকটি থাকলেও বাকিগুলো জোয়ারের পানির সাথে সাগরে তলিয়ে গেছে। এছাড়া কিছু কিছু টিউব বাঁধের পাশ থেকে সরে গেছে। ফলে আরো বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

 

ভূমিমন্ত্রীর বাসায় একাধিক ব্যক্তির সাথে কথা হলে তারা বলেন, ভাঙনের বিষয়টি আমরা মন্ত্রী মহোদয়কে জানালে তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশনা দিবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন। বাঁধ রক্ষার জন্য নতুন করে ৩০টি জিও ব্যাগ দেয়ার জন্য আমরা মন্ত্রী মহোদয়কে অনুরোধ করেছি।

পূর্বকোণ/মাহমুদ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট