চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

একদিনের রিমান্ডে সেই লিয়াকত চেয়ারম্যান

বাঁশখালী সংবাদদাতা

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ২:০৫ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে পুলিশের ওপর হামলার মামলায় গণ্ডামারা ইউনিয়নের আলোচিত চেয়ারম্যান লিয়াকত আলীর একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আগামী ১৬ এপ্রিল মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিয়সিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাঈনুল ইসলামের আদালত এ রায় দেন। 

 

এর আগে সকাল সাড়ে ১১টায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাসুদ ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেন।

 

আসামিপক্ষের আইনজীবী নুরুল আবছার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আদালত লিয়াকত আলীর একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। এছাড়া আরও দুইটি (চাঁদাবাজি ও অস্ত্র আইনের) পৃথক মামলায় পুলিশ লিয়াকত আলীর ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত আগামী ২০ ও ২৩ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন।

 

শুনানি শেষে আদালত চত্বর থেকে পুলিশের গাড়িতে তোলার সময় পুলিশের উদ্দেশে  দম্ভোক্তি করে লিয়াকত আলী বলেন, এরকম গাড়ি তিন চারটি নিয়ে এসে মামলা আরও ১০০টি দিলেও সমস্যা নেই।  

 

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি গণ্ডমারায় এস.এস. পাওয়ার প্ল্যান্টের বাইরে বালি সাপ্লাইয়ের পাইপ পরিবহনের সময় বেঁড়িবাধ সড়কে আবদুল খালেক গংদের সাথে ঠিকাদার সায়মনের লোকজনের সাথে তর্কাতর্কি থেকে সংঘর্ষের রুপ নেয়। এসময় গাড়ি ভাঙচুর ও মালামাল লুট করা হয়। এরপর রাতে দফায় দফায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সায়মন ও পুলিশসহ ১৩ জন আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ ঘটনায় রাতে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় বাঁশখালী থানার এসআই লিটন চাকমা বাদী হয়ে ৩৮ জনের নাম উল্লেখ করে আরও ১০০/১৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। এছাড়া ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষে জাহিদ হাসান বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেন।

 

মামলা দায়েরের পর রাতে অভিযান চালিয়ে লিয়াকত আলীকে অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেপ্তার করে জেলা ডিবি পুলিশ। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে ডিবির উপ-পরিদর্শক হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেন।

পূর্বকোণ/পিআর/এসি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট