চট্টগ্রাম সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪

তীব্র তাপদাহে ছাতায় স্বস্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক

১১ মে, ২০২৩ | ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

সামিরা ইসলাম পপি বেলা দেড়টার দিকে বহদ্দারহাট এলাকার একটি স্কুল থেকে ছেলেকে নিয়ে ঘরে ফিরছেন। কিন্তু বাইরে অস্বস্তিকর গরম পড়ছে। যেন ত্বক পুড়ে যাচ্ছে গরমে। তাই তিনি এক হাতে ছাতা অন্য হাতে ছেলে ও বইয়ের ব্যাগ নিয়ে হাঁটতে থাকেন। ছাতা মাথায় থাকলেও এ গরমে বেশ নাজেহাল তিনি ও তার ৮ বছরের ছেলে রাফিয়াত রনি। এ গরমে শুধু পপি ও তার ছেলে রাফিয়াতেরই এমন অবস্থা নয়। গত কয়েকদিন ধরে অসহ্য গরমে হাঁসফাঁস করছে চট্টগ্রামসহ সারা দেশের মানুষ। ঘরে-বাইরে কোথাও স্বস্তি নেই। বর্তমানে চট্টগ্রামে ৩৫-৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বিরাজ করছে। এই গরম থেকে বাঁচতে দিনের বেলায় বেড়েছে ছাতার ব্যবহার। কিন্তু এতেও যেন মিলছে না স্বস্তি। গত কয়েক দিন ধরে নগরীতে দিনের বেলায় বের হলেই ছাতা ব্যবহারের এমন দৃশ্য চোখে পড়ছে। নগরীর বিভিন্ন মার্কেটে ছাতা বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, বর্ষায় ছাতা বিক্রি বেশি হলেও এবার গরমে ছাতার চাহিদা বেড়েছে। দোকানদাররা জানিয়েছেন, অন্যান্য বছরের চেয়ে এবারের গরম মৌসুমে এর বিক্রির পরিমাণ বেশি। চকবাজার আধুনিক চক সুপার মার্কেটের রাজা কসমেটিকস এন্ড জুয়েলারি শপের স্বত্বাধিকারী মো. নাছির উদ্দিন সামির বলেন, নারীদের বিভিন্ন রকমের প্রসাধন সামগ্রী বিক্রি করি। সাথে ছাতা বিক্রি করি। বর্ষার চেয়েও এবার গরমে বেশ ভালো রকমের ছাতা বিক্রি হয়েছে। তবে ফ্যাশেনেবল ছাতাগুলো বেশি বিক্রি হচ্ছে। এসব ছাতার বেশিরভাগ কাস্টমার নারী। স্কুল- কলেজ- বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে কর্মজীবী নারীরাই ছাতা কিনছেন বেশি। মতি টাওয়ারের আরেক ব্যবসায়ী পলাশ দাশ বলেন, সারাবছরই কম বেশি ছাতা বিক্রি হয়। কারণ কিছু রূপ সচেতন মানুষ আছে যারা সারাবছরই ছাতা ব্যবহার করে থাকেন। এর মধ্যে বেশিরভাগই নারী। তবে এটি সত্য এবার গরমে বর্ষা মৌসুমের চেয়েও বেশি ছাতা বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য বছরের চেয়ে দামও বেড়েছে। মূলত দাম বাড়ার কারণ বেচা বিক্রি বেশি তা নয় বরং এখন তৈরি খরচ বেশি। যে কারণে ছাতার বান্ডিলের দাম বেড়েছে। প্রতি পিস ছাতায় ৫০-৮০ টাকা দাম বেড়েছে। তিনি আরো বলেন, গতবছর যে ছাতার দাম ৩৫০ টাকা ছিল এ বছর সেই ছাতা বিক্রি হচ্ছে ৪২০ টাকায়। কিছু ছাতা আছে যেগুলো বিক্রি হচ্ছে ৫০০-৬০০ টাকার মধ্যে। বর্ষা কিংবা গ্রীষ্মে ফ্যাশেনেবল ছাতার ব্যবহারই বেশি। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়।

গরমে যেসব ছাড়া ব্যবহার করা উত্তম : বিশেষজ্ঞদের মতে, সব রঙের ছাতা সমানভাবে সুরক্ষিত করতে পারে না। সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মির হাত থেকে শরীরকে রক্ষা করতে অবশ্যই কালো রঙের ছাতা উত্তম। কালোর পরেই যে রঙের ছাতাকে প্রাধান্য দিতে পারেন তা হলো নীল কিংবা বাদামি ও গাঢ় রঙের ছাতা।

 

 

পূর্বকোণ/এ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট