চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

শাসন করাই রাগে ঘর ছেড়েছিল নবী, ফিরল লাশ হয়ে

সীতাকুণ্ড সংবাদদাতা

২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ | ৪:৫৯ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সাগর উপকূল থেকে নবী হোসেন (১৮) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে গাউছিয়া কমিটির সহযোগিতায় লাশটি উদ্ধার করে নৌপুলিশ।

 

নিহত নবী হোসেন লক্ষীপুর জেলার আলেকজান্ডার থানার সবুজ গ্রামের শামসুল হকের ছেলে।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের আকিলপুরের সাগর উপকুলে একটি মৃতদেহ জোয়ারের পানিতে ভেসে আসে। স্থানীয়রা লাশটি দেখে কুমিরা নৌ পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে।

এদিকে এলাকাবাসী জানায়, গত কয়েকদিন আগে ফৌজদারহাট এলাকায় মধ্য সাগরে একটি বালু তোলার ড্রেজার ডুবে গিয়ে ৫ জন শ্রমিক নিখোঁজ হয়। নবী হোসেন তাদেরই একজন।

 

নিহতের পিতা শামসুল হক জানান, ছেলেকে বাড়িতে শাসন করায় সে রাগ করে গিয়ে ওই বালু তোলার ড্রেজারে কাজ নেয়। এর মধ্যে সেই ড্রেজারটি ডুবে গেলে ছেলে নবীও ডুবে যায়। বৃহস্পতিবার লাশ পাবার খবরে সাগর পাড়ে গিয়ে দেখেন এটি ছেলে নবীর লাশ।

 

কাঁদতে কাঁদতে দিশেহারা শামছুল হক আরও জানান, কখনো কল্পনা করিনি আমার ছেলেকে আর দেখব না। একটিবার তার সাথে আর কথা হবে না! এমন জানলে ছেলেকে ঘর থেকে যেতে দিতাম না। আমি গিয়ে তাকে ঘরে নিয়ে আসতাম বলে, কাঁদতে থাকেন অসহায় বৃদ্ধ বাবা।

 

তিনি আরও বলেন, ছেলে নবী আলিমে পড়ত। পড়াশুনার বিষয় নিয়ে আমরা তাকে একটু শাষণ করায় সে রাগ করে ঘর থেকে বের হয়ে যায়। কিন্তু সে যাওয়া যে শেষ যাওয়া কল্পনা করিনি।

 

কুমিরা নৌ পুলিশের ইনচার্জ নাছির উদ্দিন বলেন, সকালে সাগরে একটি লাশ ভেসে আসে। খবর পেয়ে আমরা গাউছিয়া কমিটির সহযোগিতায় লাশ উদ্ধার করি। নিহতের পরিচয় পাওয়া গেছে।

 

সীতাকুণ্ড থানার ওসি (তদন্ত) আবু সাঈদ বলেন, এর আগে নবী নিখোঁজ হয়েছেন বলে তার বাবা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। আজ লাশ পাওয়া গেল। আইনি প্রক্রিয়ার পর পরিবারকে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট