চট্টগ্রাম সোমবার, ২০ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

হার্টের সমস্যা রোধে সাহায্য করে পাকা আমের পুষ্টিগুণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৭ মে, ২০২৩ | ১১:৪২ পূর্বাহ্ণ

চলছে আমের মৌসুম। আম সবার অতি প্রিয় একটি ফল। উপমহাদেশের সবচাইতে সুস্বাদু ফল এটি। স্বাদে গন্ধে ভরা পাকা আমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন ‘এ’। এতে চোখের নানা রোগ, চুলপড়া, খসখসে চামড়া, হজমের সমস্যা দূর করে। আমে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ সেই সাথে আরো আছে ফাইবার যা সিরাম কোলেস্টরলের মাত্রা কমিয়ে দেয়, বিশেষ করে রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টরল যেমন কম ঘনত্বের লাইপোপ্রটিনের মাত্রা কমাতে সাহায্য। ত্বকের যত্নেও অনেক উপকারী ভূমিকা পালন করে পাকা আম। এতে প্রচুর পরিমাণে খনিজ লবণ এবং ভিটামিন উপাদান যেমন ভিটামিন-এ, ভিটামিন-সি, ভিটামিন-বি৬ রয়েছে।

 

তাছাড়া আরও কিছু পুষ্টি উপাদান পটাসিয়াম, কপার লৌহ এবং এমাইনো এসিড। এছাড়াও বায়োলজিক্যাল উপাদান, প্রো ভিটামিন এ বেটা ক্যারোটিন, লুশিয়েন জিলাইক এসিড, আলফা ক্যারোটিন, পলি পিথানল কিউরেচিন কাম্ফারল, ক্যাফিক এসিডসহ আরও অনেক বিশেষ উপাদান রয়েছে যা স্বাস্থের জন্য অত্যন্ত উপকারী। পাকা আম ত্বক সুন্দর, উজ্জ্বল ও মসৃণ করে। ত্বকের লোমের গোড়া পরিষ্কার করে ও ব্রণের সমস্যা সমাধানে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। দাঁত, নখ, চুল মজবুত রাখে।  পাকা আমের আঁশে কিছু উপাদান আছে যা হজমে সহায়তা করে। এতে থাকা ভিটামিন- বি কমপ্লেক্স শরীরের স্নায়ুগুলোতে অক্সিজেনের সরবরাহ সচল রাখতে সাহায্য করে। শরীরকে রাখে পুরোপুরি সতেজ। যার ফলে খুব দ্রুত ঘুম আসতে সাহায্য করে। হার্টের সমস্যা প্রতিরোধে সাহায্য করে। প্রচুর পরিমাণে টারটারিক এসিড, ফলিক এসিড ও সাইট্রিক এসিড যা শরীরে এলকালাই বা খার ধরে রাখতে সহায়তা করে। এতে পর্যাপ্ত পরিমাণে এন্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরের ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। স্তন, লিউকেমিয়া, কোলন প্রোস্টেট ক্যান্সারের মত মারাত্মক ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। আম হার্টবিট ও রক্তস্বল্পতা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা এবং শরীরের রক্ত পরিষ্কারে করে।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট