চট্টগ্রাম সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

সর্বশেষ:

চতুর্থ দিন শেষে বাংলাদেশের দরকার ৩ উইকেট

অনলাইন ডেস্ক

১ ডিসেম্বর, ২০২৩ | ৫:৫১ অপরাহ্ণ

অসাধারণ এক জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসান নেই, নেই তামিম ইকবাল, লিটন দাসের মত ব্যাটার এবং এবাদত হোসেন, তাসকিন আহমেদের মত পেসার। নাজমুল হোসেন শান্তর অধীনে বলা যায় ভাঙাচোরা একটি দল খেলতে নেমেছে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

অন্যদিকে প্রতিপক্ষ হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে বিশ্বের অন্যতম সেরা দল নিউজিল্যান্ড। এই দলটিতে কে নেই! টম ল্যাথাম, ডেভন কনওয়ে, কেন উইলিয়ামসন, হেনরি নিকোলস, টিম সাউদির মত বিশ্বখ্যাত ক্রিকেটাররা।

এমন একটি দলের বিপক্ষে জয়ের স্বপ্ন দেখাটাও মনে হতে পারে দুঃস্বপ্ন। কিন্তু সেই অসম্ভব স্বপ্নকেই সম্ভব করার দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ। আর মাত্র ৩টি উইকেট। তাইজুল, মিরাজ, নাঈম হাসানরা যদি দ্রুত এই ৩টি উইকেট তুলে নিতে পারে, তাহলেই অসাধারণ এক জয় তুলে নেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জিততে হলে বাকি তিন উইকেটে নিউজিল্যান্ডকে করতে হবে আরও ২১৯ রান।

দিনের শুরুতে মনে হয়েছে মনে হয়েছিলো এটি বাংলাদেশের জন্য ভালো দিন নয়। কিন্তু স্পিনারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে সে ধারণা বদলে গেছে। বাংলাদেশকে নিশ্চিত জয়ের সামনে এনে দাঁড় করিয়েছেন তাইজুল-নাইমরা। যদি না মিরাকল কিছু ঘটে না যায়, তাহলে জয় দিয়েই সিরিজ সিলেট টেস্ট শেষ করবে বাংলাদেশ।

চতুর্থ দিন শেষে বাংলাদেশের স্পিনারদের তোপের মুখে পড়ে ৭ উইকেট হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড। ৪৯ ওভার খেলে রান করেছে মাত্র ১১৩। জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার আর ৩ উইকেট। অপরদিকে কিউইদের করতে হবে ২১৯ রান।

ইনিংসের শুরু থেকেই কিউইদের চেপে ধরেছেন তাইজুল ইসলাম, মেহেদি হাসান মিরাজ ও নাইম হাসান। তাইজুল তুলে নিয়েছেন ৪টি উইকেট। মেহেদি আর নাইম শিকার করেছেন ১টি করে উইকেট। পেসার হিসেবে একটি উইকেট পেয়েছেন শরিফুল ইসলাম।

সবশেষ কাইল জেমিসনকে এলবিডব্লিউ করে সাজঘরে ফিরিয়েছেন তাইজুল। ২৮ বলে ৮ রান করেন এই কিউই লোয়ার অর্ডার। এর আগে গ্লেন ফিলিপসকে এলবিডব্লিউ করেছেন ডানহাতি অফস্পিনার নাইম। এই কিউই ব্যাটার করেছেন ২৬ বলে ১২ রান।

শুরুতেই ৩ উইকেট হারানোর পর দলকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন ওপেনার ডেভন কনওয়ে। দেখেশুনে খেলতে থাকেন এই কিউই ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত তাকেও পিচে থাকতে দিলেন না অফস্পিনার তাইজুল ইসলাম। ৭৬ বলে ২২ করা এই ব্যাটারকে শাহাদাত হোসেনের ক্যাচ বানান বাঁহাতি স্পিনার। এরপর উইকেটরক্ষক ব্যাটার টম ব্লান্ডেলকেও সাজঘরে ফেরত পাঠান তাইজুল। ১৬ বলে ৬ রান করে শর্টলেগে নুরুল হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন এই কিউই ব্যাটার।

এর আগে একে একে সাজঘরে ফিরেছেন ৩ কিউই টপঅর্ডার। ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে রানের খাতা খোলার আগেই টম ল্যাথামকে (৬ বলে ০) সাজঘরে ফেরত পাঠান শরিফুল ইসলাম। এই বাঁহাতি পেসারের ফুল লেন্থের বলে উইকেটরক্ষক নুরুল হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ল্যাথাম।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ দলের কাঁটা হয়ে ব্যাট করছিলেন কেন উইলিয়ামসন। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে উইলিয়ামসনকে সেটি করতে দিলেন না তাইজুল ইসলাম। ইনিংসের শুরুর দিকেই এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে এই কিউই ব্যাটারকে আউট করেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল। ২৪ বলে ১১ রান করে সাজঘরে ফেরত যান উইলিয়ামসন।

পূর্বকোণ/আরআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট