চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪

সর্বশেষ:

নেদারল্যান্ডসের কাছে বাংলাদেশের শোচনীয় হার

২৮ অক্টোবর, ২০২৩ | ৯:৫৯ অপরাহ্ণ

নেদারল্যান্ডসকে পেয়েও হারের বৃত্ত থেতে বের হতে পারলো না বাংলাদেশ। নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে ডাচদের বিপক্ষে ৮৭ রানের লজ্জার হার নিয়ে মাঠ ছেড়েছে সাকিব আল হাসানের দল। নেদারল্যান্ডসের দেয়া ২৩০ রানের ‘সহজ’ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৪২ রানেই গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ। টানা পাঁচ হারে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে চলে গেছে বাংলাদেশ। নিজেদের খেলা ছয় ম্যাচের মধ্যে শুধুমাত্র আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

 

শনিবার (২৮ অক্টোবর) কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে ২৩০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলীয় ১৯ রানেই সাজঘরে ফিরে যান ওপেনার লিটন দাস ও তানজিদ হাসান তামিম। ইনিংসের ৪ দশমিক ২ ওভারে আরিয়ানের শিকার হয়ে ফেরার আগে লিটন করেন ১২ বলে মাত্র ৩ রান। তিনি উইকেটরক্ষক এডওয়ার্সের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। ব্যাটিংয়ে নেমে ভালো শুরুর আভাস দিয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি আরেক ওপেনার তানজিদ। ১৬ বলে ৩ চারে ১৫ করা তানজিদও ফিরে যান দলের ১৯ রানে। ভ্যান বিকের বলে তিনিও ধরা পড়েন উইকেটরক্ষকের হাতে। প্রথম পাওয়ার প্লেতে বাংলাদেশ তোলে ৩৯ রান।

 

এই ম্যাচে নাজমুল হোসেন শান্তও আশাহত করেছেন দলকে। ১৮ বলে মাত্র ৯ রান করে ম্যাকেরেনের শিকার হয়ে ফেরেন শান্ত। ৪৫ রানেই ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

 

চলতি আসরে ব্যাট হাসছে না টাইগার দলপতি সাকিবের। তাই নেদারল্যান্ডস ম্যাচের আগে উড়ে এসেছিলেন মিরপুরে। নিজের ব্যাটিং নিয়ে কাজ করেন তার শৈশবের গুরু নাজমূল আবেদীনের অধীনে। তবে এই ম্যাচেও হাসেনি তার ব্যাট। উইকেটরক্ষক এডওয়ার্সের হাতে ম্যাকেরেনের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে সাকিব করেন মাত্র ৫ রান। খেলেন ১৪টি বল। এদিন তিন নম্বরে ব্যাটিং করার সুযোগ পান অলরাউন্ডার মিরাজ। দারুণ শুরুও পেয়েছিলেন তিনি। তবে ব্যক্তিগত ৩৫ রানে ডি লিডের বলে তিনিও উইকেটরক্ষককে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। ৪০ বলের মোকাবিলায় তিনি একটি ছক্কা ও ৫টি চার মারেন।

 

মিরাজের বিদায়ে ৬৯ রানেই ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। অভিজ্ঞ ব্যাটার মুশফিকের কাঁধে দায়িত্ব পড়ে দলের হার ধরার। তবে তিনিও ব্যর্থ হন ম্যাচে। ম্যাকেরেনের বলে মাত্র ১ রানে বোল্ড হয়ে মুশফিক ফিরলে ৭০ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে অনেকটা পরাজয় স্বীকার করে নেয় বাংলাদেশ।

 

আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং এ ম্যাচের একাদশে ফেরা মেহেদী হাসানের রানের জুটি পরাজয়ের ব্যবধান কমালেও জয় এনে দিতে পারেনি বাংলাদেশকে। এই জুটিতে আসে ৩৮ রান। মেহেদী ৩৮ বলে ১৭ রান করে ডি লিডের সরাসরি থ্রোতে রানআউট হয়ে ফেরেন। বাংলাদেশ ১০৮ রানেই হারায় ৭ উইকেট। ডি লিডের বলে শর্টে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে মাহমুদউল্লাহ করেন ২০ রান। শেষদিকে মোস্তাফিজের ২০ রানে ব্যবধান আরও কিছুটা কমায় বাংলাদেশ।

 

নেদারল্যান্ডসের পেসার বোলার ম্যাকেরেন ২৩ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। এছাড়া ডি লিড দুইটি এবং আরিয়ান ও ভ্যান বিক একটি করে উইকেট নেন।

 

স্কোর: বাংলাদেশ ৪২.২ ওভারে ১৪২/১০ (শরিফুল ০*, তাসকিন ১১, মোস্তাফিজ ২০, মাহমুদউল্লাহ ২০, মেহেদী ১৭, মুশফিক ১, মিরাজ ৩৫, সাকিব ৫, শান্ত ৯, লিটন ৩, তানজিদ ১৫)

 

নেদারল্যান্ডস ৫০ ওভারে ২২৯/১০ (ফন বিক ২৩*, ফন মিকেরেন ০, আরিয়ান ৯, শারিজ ৬, এঙ্গেলব্রেখট ৩৫, স্কট এডওয়ার্ডস ৬৮, বিক্রমজিৎ ৩, ম্যাক্স ও’ডাউড ০, বারেসি ৪১, অ্যাকারম্যান ১৫, বাস ডি লিড ১৭

 

পূর্বকোণ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট