চট্টগ্রাম রবিবার, ২৩ জুন, ২০২৪

শেষের ব্যাটিং ব্যর্থতায় ১৯১ রানে গুটিয়ে গেল পাকিস্তান

ক্রীড়া ডেস্ক

১৪ অক্টোবর, ২০২৩ | ৬:০১ অপরাহ্ণ

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে বেশ ভালোভাবেই এগোচ্ছিল পাকিস্তান। বাবর-রিজওয়ানের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের বার্তা দিচ্ছিল তারা। কিন্তু মুহূর্তেই তাদের মাটিতে নামিয়ে আনল ভারত। বাবরের বিদায়ের পর মাত্র ১৬ রানের ব্যবধানে আরও ৫ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়েছে পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত সবকটি উইকেট হারিয়ে ৪২.৫ ওভারে ১৯১ রানে গুটিয়ে যায় পাকিস্তান। ভারতের লক্ষ্য ১৯২ রান।

 

শনিবার (১৪ অক্টোবর) আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে পাকিস্তান। আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করলেও শেষ ‍দিকে বিপর্যয়ের মুখে পড়ে বাবর আজমের দল।

 

পাকিস্তানকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার পথে বোলিংয়ে ভারতের হয়ে জশপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ সিরাজ, হার্দিক পান্ডিয়া, কুলদ্বীপ যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজা প্রত্যকে ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

 

এদিন প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করেছিলেন পাকিস্তানের দুই উদ্বোধনী ব্যাটার ইমাম-উল-হক ও আব্দুল্লাহ শফিক। তবে ইনিংসের অষ্টম ওভারে মোহাম্মদ সিরাজের বলে এলবিডাব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন গত ম্যাচে সেঞ্চুরি করা শফিক। ২৪ বলে তিন চারে ২০ রানে ফিরেছেন তিনি।

 

এরপর ইমামকে নিয়ে রানের চাকা সচল রাখার মিশনে নামেন অধিনায়ক বাবর আজম। কিন্তু ভারতের চেপে ধরা বোলিংয়ে উইকেটে টিকে থাকতেই বেশি মরিয়া থাকতে হয় তাদের। ফলে পাওয়ার প্লের প্রথম ১০ ওভারে পাকিস্তানের ব্যাটারের ব্যাট থেকে আসে ৪৮ রান।

 

তবে দলীয় ৭৩ রানের মাথায় আউট হয়ে যান ইমাম-উল-হক। ১৩তম ওভারে ব্রেক থ্রু আসে হার্দিক পান্ডিয়ার হাত ধরে। ইমামকে তিনি মাঠছাড়া করেন ৩৮ বলে ৩৬ রানে। এরপর মোহাম্মদ রিজওয়ানকে সঙ্গে নিয়ে দলকে এগিয়ে নেওয়ার মিশনে নামেন বাবর। দুজন মিলে দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে দলকে টেনে নিয়ে যেতে থাকেন।

 

এই দুই অভিজ্ঞ ব্যাটারে ভর করে বড় সংগ্রহের পথেই এগোচ্ছিল তারা। তবে বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথম দুই ম্যাচের রানখরা কাটিয়ে ৫৭ বলে ফিফটি ফিফটি করেই সিরাজের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান বাবর।

 

বাবরের বিদায়ের পরেই তাসের মতো ভেঙে পড়ে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপ। ১৫৫ রানের মাথায় তৃতীয় ব্যাটার হিসেবে বাবরের বিদায়ের পর ১৭১ রানের মধ্যেই ৭ উইকেট নেই তাদের। এক ওভারেই জোড়া উইকেট শিকার করেন চায়নাম্যান স্পিনার কুলদ্বীপ যাদব। সৌদ শাকিলকে ৬ রানে এলবিডব্লিউতে ফেরানোর পর নতুন ব্যাটার ইফতিখার আহমেদ ফেরেন ব্যক্তিগত ৪ রানে।

 

তবে একপ্রান্তে রিজওয়ান দাঁড়িয়ে থাকায় কিছুটা আশায় ছিল পাকিস্তান। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে জয়ের নায়ক রিজওয়ান এদিনও ফিফটির দ্বারপ্রান্তে ছিলেন। কিন্তু এক রান বাকি থাকতেই বুমরাহর বলে বোল্ড হয়ে যান তিনি। ফলে ৬৯ বলে ৭ বাউন্ডারিতে ৪৯ রানেই থামে তার ইনিংস। এরপর দলের সহ-অধিনায়ক শাদাব খানকেও নিজের শিকার করেন বুমরাহ। বিদায়ের আগে তিনি করেন মাত্র ২ রান।

 

পূর্বকোণ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট