চট্টগ্রাম রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

জয় দিয়ে সুপার ফোর শুরু চায় টাইগাররা

আজ বাংলাদেশ-পাকিস্তান লড়াই

স্পোর্টস ডেস্ক

৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ | ১১:৩৬ পূর্বাহ্ণ

আজ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে সুপার ফোর পর্ব শুরু করছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের লাহোরে গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল সাড়ে ৩ টায়। জিটিভির সাথে টি স্পোর্টস ও স্টার স্পোর্টস ১ সুপার ফোর-এর প্রথম ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

 

সবার জানা, আজ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলবে বাংলাদেশ। তবে গতরাত ৯টা পর্যন্ত ক্রিকইনফোতে সূচির ঘরে আজকের ম্যাচে পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ দলটির নামের জায়গায় ছিল ‘টিবিএ’। মূলত শ্রীলংকা ও আফগানিস্তানের ম্যাচটি চলমান থাকায় গ্রুপ বি’তে ২য় স্থানটিতে কারা থাকছে সেটি নিশ্চিত না হওয়াতেই এ অবস্থা। তবে রাত ৯টার পর ক্রিকইনফো সূচিতে বাংলাদেশের নাম বসিয়ে জানায়, আফগান-লংকা ম্যাচের ফলাফল যাই হোক আজ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলবে বাংলাদেশ।

 

আসরে গ্রুপ পর্বে শ্রীলংকার কাছে হার দিয়ে শুরুর পর আফগানদের হারিয়ে সুপার ফোর নিশ্চিত করা টাইগাররা আত্মবিশ্বাস নিয়েই আজ স্বাগতিকদের মোকাবেলায় নামবে। তবে ফর্মে থাকা ব্যাটার নাজমুল হোসেন শান্ত’র ইনজুরিতে পড়ার বিষয়টি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তার জায়গায় একাদশে দেখা যেতে পারে সদ্যই দলের সাথে যোগ দেয়া লিটন দাসকে। শান্ত এশিয়া কাপ থেকেই ছিটকে গেছেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পেয়েছিলেন শান্ত। তবে সেই ম্যাচে হালকা চোট নিয়েই ব্যাটিং করেছিলেন। পরের দিন তার এমআরআই করানো হয়। শান্ত’র চোট গুরুতর না হলেও মাঠে ফিরতে আরও অন্তত ৩-৪ সপ্তাহ সময় লাগবে তার।

 

২০১৯ সালের বিশ্বকাপের পর এবারই প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-পাকিস্তান। সর্বশেষ লড়াইয়ে টাইগারদের ৯৪ রানে হারিয়েছিলো পাকিস্তান। বিশ্বকাপের ঐ ম্যাচের আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে টানা চারটি ম্যাচ জিতেছিল বাংলাদেশ। এরমধ্যে ২০১৮ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে হওয়া এশিয়া কাপের সুপার পর্বের জয়টিও ছিলো। এশিয়া কাপের মঞ্চে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের একমাত্র সাফল্য। জয় পাওয়া ম্যাচে পাকিস্তানের পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে উইকেটরক্ষক সরফরাজকে ক্যাচ দিয়ে ৯৯ রানে আউট হন মুশফিকুর রহিম। আসরের ফাইনাল খেলেছিলো  বাংলাদেশ।

 

পরিসংখ্যান মতে  ওয়ানডেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩৭ ম্যাচ খেলে ৫টিতে জয় ও ৩২টিতে হেরেছে বাংলাদেশ। এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে হৃদয় ভঙ্গের কিছু অভিজ্ঞতাও আছে বাংলাদেশের। ২০১২ সালে ঘরের মাঠের এশিয়া কাপে প্রথমবারের মত ফাইনালে উঠেছিল টাইগাররা। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনালে মাত্র ২ রানের হারে হৃদয় ভাঙ্গে পুরো জাতির। দুর্দান্ত পারফরমেন্সের সুবাদে ওয়ানডে ফরম্যাটে এখন শক্তিশালী দলে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু এশিয়া কাপের সুপার ফোর পর্বে ফেভারিট হিসেবেই শুরু করবে পাকিস্তান। কারণ ঘরের মাঠের সুবিধার পাশাপাশি দুর্দান্ত বোলিং আক্রমণ রয়েছে তাদের। শাহিন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ এবং হারিস রউফকে নিয়ে বিশ্বের অন্যতম ভয়ংকর পেস আক্রমণ রয়েছে পাকিস্তানের।

 

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ী ১১২ রানের ইনিংস খেলা মেহেদী মিরাজ বলেন, ‘আমরা কোন প্রতিপক্ষকে নিয়ে চিন্তিত নই। আমরা শুধু আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে চাই। আমরা জানি, আমরা যদি সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারি, যে কোন দলকে যে কোন কন্ডিশনে হারাতে পারি।’

 

পূর্বকোণ/আরডি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট