চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

ভারতের কাছে হেরে ফাইনাল খেলা হলো না বাংলাদেশের

অনলাইন ডেস্ক

২১ জুলাই, ২০২৩ | ১০:৪২ অপরাহ্ণ

টার্গেট মোটেও বড় নয়। বড় শট খেলার খুব একটা প্রয়োজন নেই। ঝুঁকির তো প্রশ্নই আসে না। মাথা ঠাণ্ডা রেখে সিঙ্গেল-ডাবলস নিয়ে খেললেই জেতা সম্ভব।

 

এমন সমীকরণে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশের মিডল অর্ডার আত্মহননের পথ বেছে নিল! দারুণ ওপেনিং জুটির পরও ভারতের দেওয়া ২১২ রানের টার্গেট তাড়ায় সাইফ হাসানের দল থামল ১৬০ রানে। সেমিফাইনালে ভারতের কাছে ৫১ রানের পরাজয়ে ইমার্জিং এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলা হলো না বাংলাদেশের। আগামী রবিবারের ফাইনালে ভারতের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান।

 

রান তাড়ায় নেমে বাংলাদেশকে ভালো শুরু এনে দেন দুই ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম শেখ আর তানজিদ হাসান।৪০ বলে ৩৮ করা নাঈম বোল্ড হয়ে গেলে ভাঙে ৭০ রানের ওপেনিং জুটি। এরপর হুট করেই যেন ধস নামে। তানজিদ তামিম ফিফটি করার পর থামেন ৫৬ বলে ৮ চারে ৫১ রানে। জাকির হাসান ৫ রান করে নিশান্ত সিন্ধুর বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন।

 

৬ রানের মধ্যে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। এরপর মাহমুদুল আর সাইফ মিলে প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। কিন্তু অভিষেকের বলে থামে সাইফের ২৪ বলে ২২ রানের ইনিংস। মাহমুদুলের সঙ্গী হন সৌম্য সরকার। সেই সৌম্য ৫ রানে ফিরলে সত্যিই চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ।

১৩০ রানে নেই ৫ উইকেট! ভারতীয় স্পিনে ধরাশায়ী হয়ে আকবর আলী ফিরেন ২ রানে। নিশান্ত সিন্ধুর করা ৩১তম ওভারের পঞ্চম এবং শেষ বলে পরপর আউট হয়ে যান শেখ মেহেদি (১২) আর রকিবুল হাসান (০)। দ্রুত উইকেট হারিয়ে ৩৪.২ ওভারে ১৬০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ৫১ রানের জয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে ভারত। 
এর আগে কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টস জিতে বোলিংয়ে নেমে ভারতকে ৪৯.১ ওভারে ২১১ রানে অল-আউট করে বাংলাদেশ। ২৯ রানে প্রথম উইকেট পতন ঘটান তানজিম সাকিব। সাই সুদর্শন ফিরেন ২১ রানে। অপর ওপেনার অভিষেক শর্মা করেন ৩৪ রান। তিনে নামা নিকিন জোসেকে নিয়ে ব্যাপক নাটক হয়েছে। ব্যক্তিগত ৯ রানে তিনি ‘স্টাম্পড’ হয়েও বেঁচে যান! থার্ড আম্পায়ার তাকে শুরুতে আউট ঘোষণা করলেও পরে ফিল্ড আম্পায়ারর হস্তক্ষেপে সিদ্ধান্ত বদলান।এই সিদ্ধান্ত বদলে আপত্তি জানায় বাংলাদেশ। জীবন পেয়েও ১৭ রানের বেশি করতে পারেননি নিকিন।
ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করেন অধিনায়ক ইয়াশ ধুল। বাকি কেউই আর বিশের ঘরেও যেতে পারেননি। ৪৯.১ ওভারে ২১১ রানে অল-আউট হয় ভারত। ২টি করে উইকেট নেন মেহেদি হাসান, তানজিম সাকিব এবং রকিবুল হাসান। এছাড়া সৌম্য, সাইফ আর রিপন নেন ১টি করে। সূত্র: কালের কণ্ঠ

 

পূর্বকোণ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট