চট্টগ্রাম সোমবার, ২০ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

রদ্রিগোর জোড়া গোলে কোপা’র শিরোপা জিতল রিয়াল

স্পোর্টস ডেস্ক

৭ মে, ২০২৩ | ১:০২ অপরাহ্ণ

ম্যাচ শুরুর এক মিনিট ৪৭ সেকেন্ডে গোল হজমের পর রিয়াল মাদ্রিদের চোখে চোখ রেখে লড়াই করল ওসাসুনা। সমতা ফিরিয়ে জমিয়ে তুলল লড়াই, কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। তাদের স্বপ্ন গুঁড়িয়ে কোপা দেল রের শিরোপা জিতল কার্লো আনচেলত্তির দল। অন্যদিকে, ১০৩ বছরের ক্লাব ইতিহাসে ওসাসুনার একটি বড় শিরোপা জয়ের অপেক্ষা আরও বাড়ল। এর আগে ২০০৫ সালেও প্রতিযোগিতাটির ফাইনালে তারা হেরেছিল, রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে।

 

সেভিয়ায় শনিবার রাতের ফাইনালে রদ্রিগোর জোড়া গোলে ২-১ ব্যবধানে জিতেছে রিয়াল।

 

শেষবার ২০১৩/১৪ মৌসুমে স্প্যানিশ কোপা দেল রে’র শিরোপা ঘরে তুলেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। এরপর পাঁচবার উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতলেও ৯ বছরেও আর জেতা হয়নি স্প্যানিশ কোপা দেল রে’র শিরোপা। অবশেষে ঘুচল সেই আক্ষেপ। ২০২২/২৩ মৌসুমের কোপা দেল রে’র ফাইনালে ওসাসুনাকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে কোপা দেল রে’র ২০তম শিরোপা ঘরে তুললো লস ব্ল্যাঙ্কোসরা।

 

সেভিয়ার অলিম্পিকো স্টেডিয়ামে ফাইনালের মাত্র দুই মিনিটের মাথায় গোল করে রিয়ালকে এগিয়ে নেন রদ্রিগো। এরপর ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের ৫৮তম মিনিটে ওসাসুনাকে সমতায় ফেরান টোররো। ম্যাচের ৭০তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে আবারও রিয়ালকে লিড এনে দেন রদ্রিগো। শেষ পর্যন্ত লিড ধরে রেখে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অল হোয়াইটসরা। আর এতেই ২০ বারের মতো কোপা দেল রে’র শিরোপা ঘরে তুলল কার্লো আনচেলোত্তির দল।

 

সেভিয়াতে কোপা দেল রে’র ফাইনাল শুরুর বাঁশি কেবলই বেজেছে। ঠিক তার এক মিনিট ৪৭ সেকেন্ড পরে দুই ব্রাজিলিয়ানের নৈপুণ্যে ম্যাচে এগিয়ে যায় রিয়াল। ওসাসুনার দুই খেলোয়াড়ের বাধা এড়িয়ে বাঁ দিকের বাইলাইনের কাছাকাছি থেকে কাট-ব্যাক করেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। ছয় গজ বক্সের মুখে বাঁ পায়ের শটে বল জালে পাঠান অরক্ষিত রদ্রিগো।

 

পিছিয়ে পড়ার পর একের পর এক আক্রমণ করতে শুরু করে ওসাসুনা। তবে থিবো কোর্তোয়া শক্ত হাতে রুখে দেন সব প্রচেষ্টা আর ধরে রাখেন রিয়ালের লিড। এদিকে নিজেদের আক্রমণের ধারও বাড়াতে শুরু করে রিয়াল। ২৪তম মিনিটে দারুণ সেভে ব্যবধান বাড়তে দেননি ওসাসুনার গোলরক্ষক সার্জিও হেরেরা। ভিনিসিয়াস বিপজ্জনক পাস দেন বক্সে। রদ্রিগোর ফ্লিকে বল পেয়ে যান করিম বেনজেমা। তার শট ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন হেরেরা।

 

৩২তম মিনিটে অল্পের জন্য ব্যবধান দ্বিগুণ হয়নি। ডাভিড আলাবার বুলেট গতির ফ্রি-কিক ক্রসবারে লেগে ফেরে। এতেই প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রিয়াল।

 

বিরতি থেকে ফিরে লিড বাড়ানোর চেষ্টা করতে থাকে রিয়াল। তবে উল্টো ম্যাচের ৫৮তম মিনিটে সমতায় ফেরে ওসাসুনা। বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত হাফ-ভলিতে গোলটি করেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার লুকাস টোরো।

 

কিন্তু ওসাসুনাকে খুব বেশি সময় স্বস্তিতে থাকতে দেয়নি রিয়াল। ৭০তম মিনিটে আবার এগিয়ে যায় রিয়াল। বাঁ দিকের বাইলাইন থেকে ভিনিসিয়াসের কাট-ব্যাক ক্লিয়ার করলেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেনি ওসাসুনা। টনির ক্রুসের শট এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে বল পেয়ে যান রদ্রিগো, বাকিটা অনায়াসে সারেন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার। বাকি সময়ে বাবধান বাড়ানোর ভালো দুটি সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি আলাবা ও বেনজেমা। যোগ করা সময়ে সুযোগ হারায় ওসাসুনাও। উল্লাসে মাতে রিয়াল।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট