চট্টগ্রাম রবিবার, ২৬ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

রাইডার্সদের হারিয়ে প্রথম আসরেই ফাইনালে স্ট্রাইকার্স

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১১:০৭ অপরাহ্ণ

লড়াই করার মতো পুঁজি পেয়েছিল সিলেট। পরে বল হাতেও তোপ ছুঁড়ছিলেন তারা। মাশরাফীদের আগুন ঝরা বোলিংয়ের বদলা সোহানদের ঝড়ো ব্যাটে দিতে দেখা গেছে। বাঁচা-মরার ম্যাচে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছিল লড়াই। সে লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত ১৯ রানে জয়ী হয় সিলেট স্ট্রাইকার্স। রংপুরকে হারিয়ে বিপিএলের ফাইনালে কুমিল্লার প্রতিপক্ষ হয়েছে তারা।

রংপুরের পরাজয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনাল খেলার সুযোগ যোগ্যতার সিলেট। বিপিএলের এই আসরে নবাগত দল হিসেবে অংশ নিয়েছিল তারা। আর প্রথম আসরেই উঠে গেছে তারা ফাইনালে।

 

সিলেটের দেয়া ১৮৩ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় রংপুর। ইংলিশ ক্রিকেটার স্যাম বিলিংসকে হারায় তারা দ্বিতীয় ওভারেই। রনি তালুকদার আর শামীম হোসাইন পাটোয়ারি দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে চেষ্টা চালিয়েছিলেন। তবে শামীমের বিদায়ে সেটাও বৃথা যায়। তৃতীয় উইকেট জুটিতে নেমে ঝড় তুলেছিলেন নিকোলাস পুরাণ। কিন্তু সেটাও স্থায়ী হয়নি।

তবে চতুর্থ উইকেট জুটিতে অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান যোগ্য সঙ্গ দেন রনিকে। দুজনে মিলে গড়েন ৮২ রানের জুটি। আঠারোতম ওভার পর্যন্ত টিকে ছিলেন তিনি। তাতেই জয়ের পথে এগুচ্ছিল রংপুর। এই জুটিতে দুজনকেই আগ্রাসী ব্যাটে খেলতে দেখা যায়। তবে শেষ পর্যন্ত দুজনের কেউ টিকতে পারলেন না।

 

আঠারোতম ওভারে বল হাতে এলেন তানজিম সাকিব। তার সেই ওভারেই বিদায় নেন দুজন। তারা বিদায় নিলেও ক্ষীণ আশা ছিল ডোয়াইন ব্র্যাভোকে ঘিরে। কিন্তু লুক উডের প্রথম বলে তিনিও ফিরে গেলে নিভে যায় সে আশা। শেষ পর্যন্ত দাসুন শানাকারা শুধু হারের ব্যবধানটাই কমাতে পেরেছেন।

রংপুরের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করে রনি তালুকদার। তার ব্যাট থেকে আসে সাতটি চার ও দুটি ছয়। এছাড়া অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ৩৩ ও নিকোলাস পুরাণ ৩০ রান করেন।

 

সিলেটের হয়ে লুক উড সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেছেন। এছাড়া তানজিম সাকিব ও রুবেল হোসেন নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সিলেট স্ট্রাইকার্স ১৮২ রান করে। নাজমুল শান্ত ৪০ ও মাশরাফী ২৭ রান করেন।

 

পূর্বকোণ/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট