চট্টগ্রাম বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৮ মে, ২০১৯ | ৫:১৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ঝুঁকিপূর্ণ ভবন জরিপের নির্দেশ

তিন মাসের মধ্যে জমা দিতে হবে প্রতিবেদন

সরকারি ও বেসরকারি সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ঝুঁকিপূর্ণ বা ত্রুটিপূর্ণ ভবন চিহ্নিত করতে সারাদেশে জরিপ চালিয়ে সেগুলো নিরাপদ করার ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত। আগামী ২১ আগস্ট প্রতিবেদন জমা দিয়ে সংশ্লিষ্টদেরকে অন্তর্বর্তী এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

গত ৬ এপ্রিল বরগুনার তালতলীর ছোটবগি পিকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিম ধসে পড়ে মানসুরা (৮) নামে তৃতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত হয়। ওই ঘটনায় আহত হয় আরও কয়েকজন শিক্ষার্থী। এরপর দেশের আরও কয়েকটি স্কুলে দুর্ঘটনার খবর পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। সেসব প্রকাশিত খবর সংযুক্ত করে গত ৭ এপ্রিল উচ্চ আদালতের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদন করেন করে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসান তারেক পলাশ ও বেসরকারি আইনগত সহায়তাকারী ল অ্যান্ড লাইফ ফাউন্ডেশন। সে রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়েই রুলসহ এ আদেশ দেন আদালত।

সংশ্লিষ্ট রিটকারী আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লব জানান, উচ্চ আদালত সারাদেশের সকল সরকারি ও বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঝুঁকিপূর্ণ ভবন চিহ্নিত করতে জরিপ চালাতে নির্দেশ দিয়েছেন। আগামী তিন মাসের মধ্যে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রধান প্রকৌশলী এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী ও অতিরিক্তি প্রধান প্রকৌশলীকে জরিপের প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

তিনি বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর বিশেষ করে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নিয়ে সম্প্রতি পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত বেশ কিছু খবরে দেখা গেছে, ভবনগুলোর অধিকাংশই ঝুঁকিপূর্ণ। সেখানে শিক্ষা কার্যক্রম চালানো হচ্ছে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে। আদালতে এসব বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে আদালত রুলসহ এ জরিপের আদেশ দিয়েছেন যেখানে ২১ আগস্টের ভেতর প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। মঙ্গলবার আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন হুমায়ুন কবির পল্লব।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে শিক্ষা সচিব, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, স্থানীয় সরকার সচিব, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী ও অতিরিক্তি প্রধান প্রকৌশলীকে ।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লব। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মোজাম্মেল হক ও মো. মাজেদুল কাদের। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু। এ সংক্রান্ত এক রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি বিচারপতি মো খায়রুল আলম ও জেবিএম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আজ এ আদেশ দেন।

The Post Viewed By: 231 People

সম্পর্কিত পোস্ট