চট্টগ্রাম রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

নিজের নামে আর প্রতিষ্ঠান চান না শেখ হাসিনা

অনলাইন ডেস্ক

১ জুলাই, ২০২৪ | ১০:৪১ অপরাহ্ণ

মাদারীপুরের শিবচরে একটি তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান নিজের নামে নামকরণ করতে দেখে তা থামিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

সোমবার নতুন অর্থবছরের প্রথম মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ থেকে ‘শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি আইন-২০২৪’ এর খসড়া প্রস্তাব আসে। তখন প্রধানমন্ত্রী নামকরণের বিষয়টি নাকচ করে দেন।

 

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বললেন যে, এটি উনার নামে হবে না। উনার নাম বাদ দিয়ে ইনস্টিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনলজি আইন-২০২৪ এই নামে অনুমোদিত হয়েছে। উনি উনার নামটা গ্রহণ করেন নাই। শুধু ‘ইনস্টিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি আইন-২০২৪’ হিসেবে খসড়াটি নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।”

 

এর আগেও নিজের নামে প্রতিষ্ঠান করতে প্রধানমন্ত্রী বারণ করেছেন জানিয়ে সচিব বলেন, “আগেও উনি উনার নাম বাদ দিয়েছিলেন। যেহেতু এটি এই ক্যাটাগরির প্রথম কোনো প্রতিষ্ঠান সেজন্য মন্ত্রিসভা থেকে অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু উনি নিজের নামে প্রতিষ্ঠান করতে সম্মত হননি। উনি উনার নামে প্রতিষ্ঠান না করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন।”

 

নির্বাচনে জিতে টানা চতুর্থবার সরকার গঠন করা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ২০ বছরের অধিক সময় ধরে সরকার পরিচালনা করছেন। এ সময়ে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান শেখ হাসিনার নামে নামকরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পাশে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট, জামালপুরের ইসলামপুরে শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনলজি রয়েছে।

 

এর বাইরে নৌবাহিনীর একটি নৌ ঘাঁটি, দুটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, একাধিক বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়, একাধিক মেডিকেল কলেজ, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্তত ১০টি ছাত্রাবাস রয়েছে তার নামে। যদিও বিভিন্ন সময়ে নামকরণ থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তিনি।

 

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ইনস্টিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজির মূল কাজ হবে আইসিটি সংক্রান্ত গবেষণা, প্রযুক্তি উদ্ভাবন ইত্যাদি। এ প্রতিষ্ঠানে বিশেষায়িত গবেষণা করা হবে, প্রযুক্তি উদ্ভাবনের কাজ করা হবে, বিশেষ ক্ষেত্রে ডিগ্রিও দেবে। আন্তর্জাতিক বাজারকে লক্ষ্য করে খুবই উচ্চমানের পড়াশোনা হবে এখানে। এই প্রতিষ্ঠানের কাজ আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হবে। আধুনিকতম ল্যাবরেটরি থাকবে। 

 

 

পূর্বকোণ/আরআর/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট