চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

২৩ হাজার পদ খালি রেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক

২১ এপ্রিল, ২০২৪ | ২:১৮ অপরাহ্ণ

জনবল সংকটে ধুঁকছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। রাষ্ট্রীয় এই পরিবহন সেবা সংস্থার অনুমোদিত পদের অর্ধেক পদই এখন শূন্য হয়ে আছে। এর মধ্যে তৃতীয় এবং চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীর পদই সবচেয়ে বেশি বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

 

রেলওয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, নিয়োগবিধি নিয়ে জটিলতা তৈরি হওয়ায় দীর্ঘদিন রেলে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ ছিল। এর মধ্যে অবসরে চলে গেছেন অনেক কর্মকর্তা-কর্মচারী। ফলে জনবল সংকট বাড়তে থাকে। যা এখন তীব্র আকার ধারণ করেছে। এতে যাত্রীদের মানসম্পন্ন সেবা দেওয়া কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

 

বিশেষ করে রেলওয়ের সেবা সম্প্রসারণের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি নতুন ট্রেন চালু করার পরে জনবল সংকট প্রকট হয়েছে। গতবছর চালু হওয়া চারটি নতুন রুটে আরও ট্রেন পরিচালনা শুরু করলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে বলে মনে করছেন রেল কর্মকর্তারা।

 

বাংলাদেশ রেলওয়ের তথ্য অনুসারে, রেলে পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চলসহ সবমিলিয়ে ৪৭ হাজার ৬৩৭টি অনুমোদিত পদ রয়েছে। এর মধ্যে এখন কাজ করছেন মাত্র ২৪ হাজার ৪০৩ জন। খালি রয়েছে ২৩ হাজার ২৩৪টি পদ। শূন্যপদের মধ্যে ২০ হাজার ৬৬৬টি পদ তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীর। তবে ২০২২ সালে নিয়োগবিধি জটিলতা কেটে যাওয়ায় ফের জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলওয়ের কর্মকর্তারা। এরই অংশ হিসেবে গত এক বছরে ৫ হাজারের বেশি রেলকর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আরও কয়েক হাজার রেলকর্মী নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে।

 

২০২২ সালের ডিসেম্বর থেকে সহকারী স্টেশন মাস্টার, গার্ড, পয়েন্টসম্যান, কারিগরি সহকারী (খালাসি), সহকারী লোকোমাস্টার এবং ওয়েম্যান হিসেবে মোট ৫ হাজার ৩৪২ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে পয়েন্টসম্যান ও বুকিং সহকারীসহ কয়েকটি পদের জন্য নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে।

পূর্বকোণ/এসএ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট