চট্টগ্রাম রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪

বাস ভাড়া কমানোর নামে সরকার জনগণের সঙ্গে তামাশা করছে

অনলাইন ডেস্ক

১ এপ্রিল, ২০২৪ | ৪:৩৬ অপরাহ্ণ

দফায় দফায় জ্বালানি তেলের দাম কমলেও হিস্যা অনুযায়ী বাস ভাড়া কমানোর পরিবর্তে প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমিয়ে সরকার দেশের যাত্রী সাধারণের সঙ্গে তামাশা করছে বলে অভিযোগ করেছে যাত্রী অধিকার রক্ষায় সোচ্চার সংগঠন বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

 

সোমবার (১ এপ্রিল)  দুপুরে সংবাদ মাধ্যমে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরীর পাঠানো বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়।

 

বিবৃতিতে তিনি বলেন, আসন্ন ঈদযাত্রায় দেশের বিভিন্ন রুটে যাতায়াতকারী অধিকাংশ বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের নৈরাজ্য শুরু হয়েছে। এমন সময়ে ২ দফা জ্বালানি তেলের দাম কমানো পর সরকার আজ বাসের ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমানো ঘোষণা দিয়েছে। যা কোনোভাবেই কার্যকর যোগ্য নয়। ইতোপূর্বে সরকার ২০১১ সালে বাসের ভাড়া ২ পয়সা কমিয়েছিলেন। এর সুফল যাত্রী সাধারণ পায়নি।

 

এরপর ২০১৬ সালে জ্বালানি তেলে মূল্য কমানোর কারণে বাসের ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুফল থেকেও দেশের যাত্রীসাধারণ বঞ্চিত হয়েছে। ঠিক একই পন্থায় বাস মালিকদের বিশেষ সুবিধা দিতে এবারো বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুফল কোনো পরিবহনে মিলবে না। এতে জ্বালানি তেলের মূল্য কমানোর সুফল কেবল বাস ও অন্যান্য পরিবহনের মালিকেরা ভোগ করলেও দেশের জনগণ বঞ্চিত হবে। 

বিবৃতিতে অনতিবিলম্বে উল্লেখযোগ্য হারে জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে দেশের সাধারণ নাগরিকদের সামর্থ্য বিবেচনায় গণপরিবহণ ভাড়া উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে আনার দাবি জানানো হয়।
পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট